বিজ্ঞানীরা রোবোটিক উন্নয়নে হার্ট অঙ্গ প্রতিস্থাপন থেকে মুক্তি পাবে

|

বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে এমন অনেক কিছুই রয়েছে যা এই শতাব্দীকে মানব কল্যাণে একটি শতাব্দীতে রূপান্তরিত করছে। বিজ্ঞানীরা ক্রমাগতভাবে নতুন প্রযুক্তি উদঘাটন করছেন, যার মাধ্যমে চিকিৎসা ক্ষেত্রে মৌলিক পরিবর্তন আসছে। এটি থেকে বিশ্বাস করা হয় যে, রোবোটিক হার্টের পরে অঙ্গ প্রতিস্থাপনের উপশম হবে।

যে কারণে প্রকল্পটির বিলিয়ন কোটি টাকা:-
ডিভাইসটি হৃদ্‌রোগের চিকিৎসা প্রতিস্থাপনের জন্য ত্রিশ মিলিয়ন পাউন্ড প্রদানের জন্য নির্বাচিত চারটি প্রকল্পের মধ্যে একটি কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের সাথে যুক্ত সেরা গবেষকদের দলে অক্সফোর্ড, ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন, হার্ভার্ড এবং শেফিল্ডের বিশেষজ্ঞরা এবং বিশ্বের আরও অনেক শীর্ষস্থানীয় গবেষক রয়েছেন।

আমূল পরিবর্তনের দৃশ্যমান লক্ষণ:-
রোবোটিক হার্টের পাশাপাশি নির্বাচিত প্রকল্পগুলির মধ্যে রয়েছে, হৃদরোগের জন্য ভ্যাকসিন, হার্টের ত্রুটির জন্য জিনগত চিকিৎসা এবং পূর্ববর্তী বিদ্যমান প্রজন্মের হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের জন্য সর্বোত্তম পরবর্তী প্রজন্মের ‘পরিধানযোগ্য’ প্রযুক্তি ঠিকানা দিতে পারে এই কৌশলটি বিভিন্ন উপায়ে আমূল পরিবর্তন আনবে।

বিএইচএফের বৃহত্তম বিনিয়োগ:-
ব্রিটিশ হার্ট ফাউন্ডেশন (বিএইচএফ) ৩০ মিলিয়ন পাউন্ড ‘বিগ বিট চ্যালেঞ্জ’কে অর্থায়ন করছে। এটি ৪০ টি দেশের দল থেকে ৭৫৫ টি আবেদন পেয়েছিল। চারজন চূড়ান্ত প্রার্থীকে আগামী ছয় মাসে তাদের মতামত দেওয়ার জন্য প্রাথমিক অর্থ হিসাবে ৫০ হাজার পাউন্ড দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে একটি গ্রীষ্মে প্রধান পুরষ্কারের জন্য শর্টলিস্ট করা হবে। বিএইচএফের ইতিহাসে এটি বিজ্ঞানের অগ্রগতির একক বৃহত্তম বিনিয়োগ।

৪ বছরের মধ্যে অঙ্গ প্রতিস্থাপন থেকে মুক্তি:-
বিজ্ঞানীরা বিশ্বাস করেন যে, এই রোবোটিক হার্ট এক্সপোজারের আট বছরের মধ্যে অঙ্গ প্রতিস্থাপনের সমস্যাটি কাটিয়ে উঠবে। নেদারল্যান্ডস, কেমব্রিজ এবং লন্ডনের বিশেষজ্ঞরা একটি ‘নরম রোবট’ হৃদয় তৈরি করছেন যা নিয়মিতভাবে রক্তের আক্রমণকে দেহের নিকটবর্তী করে চিকিৎসা করবে। তাদের লক্ষ্যটি তিন বছরের মধ্যে তার কাজের নমুনাটি প্রাণীতে এবং তারপরে ২০২৮ সালের মধ্যে মানুষের কাছে স্থানান্তরিত করবে।

হাইব্রিড হার্ট প্রকল্প:-
আমস্টারডাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নেতৃত্বাধীন ‘হাইব্রিড হার্ট’ প্রকল্পটি সিন্থেটিক রোবোটিক সামগ্রী ব্যবহার করে। এটি ল্যাব-তৈরি মানব কোষের স্তরগুলির সাথে মিলিয়ে হৃদয়ের সংকোচনের প্রতিরূপ তৈরি করে, যাতে ডিভাইসটি শরীরের প্রতিরোধ ব্যবস্থা দ্বারা অনুমোদিত হয়ে তা নিশ্চিত করে। এটি একটি ওয়্যারলেস ব্যাটারি দ্বারা চালিত। এটি শত শত জীবন বাঁচাতে পারে। বিজ্ঞানীরা আশা করছেন এটি হার্ট ট্রান্সপ্ল্যান্ট প্রতিস্থাপন করবে।








Leave a reply