World Cup 2019, BNG Vs AFG: দুরন্ত শাকিব, নক-আউটের স্বপ্নে এখন বাংলাদেশ

|

ব্যাট হাতে ৬৯ বলে ৫১ রানের ইনিংসের পর বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ পাঁচ উইকেট। যে দলে বিশ্বের সেরা অল-রাউন্ডার রয়েছেন সেই দলের হার-জিৎ অনেকটাই সামলে দিতে পারেন তিনিই। তিনি আর কেউ নন শাকিব আল হাসান। বিশ্বকাপের প্রথম থেকেই দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন তিনি। দুটো সেঞ্চুরি ইতিমধ্যেই করে ফেলেছেন। এ দিনও দলের ২৬২ রানে তাঁর বড় অবদান রেখে গেলেন। যদিও তার পর বাংলাদেশ ইনিংসকে টানলেন মুশফিকুর রহিম। ৫০ ওভার শেষে আফগানিস্তানের সামনে লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয় ২৬৩ রা‌নের। যাতে পৌঁছতে ব্যর্থ গুলবাদিন নাইবরা। ম্যাচের আগের দিন তিনি হুমকি দিয়েছিলেন সবাইকে নিয়েই ডুবব। কিন্তু সেটা হল না। ৪৭ ওভারে ২০০ রানে শেষ হয়ে গেল আফগানিস্তান।

জিতে নক-আউটের আশা জিইয়ে রাখল বাংলাদেশ। সোমবার সাদাম্পটনের রোজ বোলে বৃষ্টির জন্য টস হতে সামান্য দেড়ি হলেও ম্যাচের উপর তার কোনও প্রভাব পড়েনি। এ দিন টস জিতে প্রথমে বাংলাদেশকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিল আফগানিস্তান। ওপেনার লিটন দাস মাত্র ১৬ রান করেই ফিরে যান। এর পর তামিম ইকবালের সঙ্গে বাংলাদেশের ইনিংসকে টানেন শাকিব আল হাসান। তামিম আউট হন ৩৬ রানে ও শাকিব করেন ৫১ রান। ১৪৩-৩ থেকে মুশফিকুর প্রায় একা হাতেই দলের ইনিংসকে টেনে নিয়ে যান ২৫১-৬-এ। এর মধ্যে সৌম্য সরকার ৩ ও মাহমুদুল্লাহ ২৭ রান করে আউট হন। কিছুটা ভরসা দেন মোসাদ্দেক হোসেন। তিনিও ফেরেন ৩৫ রানে। ৫০ ওভারে সাত উইকেট হারিয়ে ২৬২ রান তোলে বাংলাদেশ। আফগানিস্তানের হয়ে তিন উইকেট নেন মুজিব উর রহমান।

দুই উইকেট নেন গুলবাদিন নাইব। একটি করে উইকেট দওলত জাদরান ও মহম্মদ নবির। জবাবে ব্যাট করতে নেমে রানেই শেষ হয়ে যায় আফগানিস্তান। শুরুটা ভালই করে দিয়েছিল আফগানরা।

অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব ৭৫ বলে ৪৭ রানের ইনিংস খেলেন। আর এক ওপেনার রহমত শাহ করেন ২৪ রান। দু’জনকেই প্যাভেলিয়নে ফেরান শাকিব আল হাসান। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে হশমতুল্লা শাহিদি ১১ রান করেন। আসঘর আফঘান ২০, মহম্মদ নবি ০, ইকরাম আলি খান ১১, নাজিবুল্লা জাদরান ২৩, রশিদ খান ২, দওলত জাদরান ০, মুজিব উর রহমান ০ রান করে আউট হন। বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে দুরন্ত সফল শাকিব আল হাসানই। পাঁচ উইকেট নেন তিনি। এক উইকেট নেন মোসাদ্দেক হোসেন ও মহম্মদ সইফুদ্দিন। দুই উইকেট মুস্তাফিজুর রহমানের। আফগানিস্তানের হয়ে ৪৯ রান করে অপরাজিত থাকলেন শামিউল্লা শিনওয়ারি। কিন্তু জয়ের রাস্তা দেখাতে পারলেন না দলকে। ৬২ রানের হেরে যেতে হল আফগানিস্তানকে।








Leave a reply