বিসিবি সভাপতি বললেন, মাঠে খেলা গড়াবেই

|

কঠিন শর্তের মারপ্যাঁচে শ্রীলঙ্কা সফর অনিশ্চিত বাংলাদেশের। পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে তাতে শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের না যাওয়া অনেক টাই অনিশ্চিত। অথচ এই সিরিজকে সামনে রেখে ১৯ জুলাই ২০২০ থেকে ক্রিকেটাররা ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুশীলন করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে সকল কোচিং স্টাফও চলে এসেছে। এ অবস্থায়ও কী তাহলে ক্রিকেটের বাইরে থাকবে বাংলাদেশ? মোটেও নয়, খুব দ্রুতই ঘরোয়া ক্রিকেট ফিরবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান।

রবিবার রাতে বিসিবি বরাবর চিঠি পাঠায় লঙ্কান বোর্ড। চিঠিতে শ্রীলঙ্কা সফরের ব্যাপারে বাংলাদেশ দলের জন্য বেঁধে দেওয়া হয় কঠিন সব শর্ত। সেই শর্ত মেনে শ্রীলঙ্কায় দল পাঠাতে ইচ্ছুক নয় বিসিবি। বরং বিকল্প ভাবনা হিসেবে ঘরোয়া ক্রিকেটে কত দ্রুত ফেরানো যায় সেটাই এখন ভাবছে বিসিবি। তবে সেটা ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) নাকি জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) তা এখনই বলতে সম্মত হননি বিসিবি প্রধান। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘আমরা ক্রিকেট ফিরিয়ে আনবো এতটুকু আমরা জানি। কীভাবে তা জানি না। বাইরের কারো সাথে খেলা হবে কি না জানি না। আমারা নিজে দের ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করে দেবো খুব দ্রুত।’

কীভাবে ক্রিকেট ফেরাবেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, মাঠে খেলা গড়াবেই,‘কি করবো সেটা এখন বলছি না। কিছু তো একটা করবোই। ক্রিকেট মাঠে ফেরাবো। এখন কোচিং স্টাফ আছে। ছেলেরা এতদিন খেলার বাইরে। ওদের আবার খেলার মাঠে নিয়ে আসবো। একে বারে ওই রকম কিছু করতে পারবো কি না জানি না। আমরা তো ক্লাবগুলোকে ম্যানেজ করতে পারবো না। যেটুকুই ম্যানেজ করতে পারবো তত জনকে নিয়েই করবো। ৪০ বা ৬০ খেলোয়াড় হলে পারবো। করোনা কালীন সময়ে ক্রিকেটার দের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। আমরা যতটুকু কন্ট্রোল করতে পারবো, ততটুকু খেলা চালাব। তবে খেলা মাঠে গড়াবেই।’








Leave a reply