ফাতির রেকর্ড ভাঙার রাতে জয়ে ফিরেছে স্পেন

|

১৭ বছর ৩০৮ দিন বয়সে স্পেনের জার্সি গায়ে অভিষেক হয়েছে ‘বিস্ময় বালক’ আনসু ফাতির। ৮৪ বছরে এত অল্প বয়সে স্পেনের জার্সি গায়ে দেননি আর কেউ। তবে যে প্রতিশ্রুতি নিয়ে তার খেলতে নামা, সেটি ঠিকই রেখেছেন উয়েফা নেশনস লিগে। অভিষেক ম্যাচে রেকর্ড গড়া না হলেও ইউক্রেনের বিপক্ষে ৯৫ বছরের পুরনো রেকর্ড ঠিকই ভেঙেছেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড।

ইউক্রেনের বিপক্ষে ৪-০ গোলের জয়ে ফাতির স্কোর ছিল একটি। এই গোল করে ৯৫ বছর পর স্পেনের সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা হয়ে গেছেন গিনি বিসাউ বংশোদ্ভুত এই ফরোয়ার্ড। সর্বশেষ রেকর্ডটি ছিল হুয়ান এরাজকুইনের। তিনি ১৯২৫ সালে ১৮ বছর ৩৪৪ দিন বয়সে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতার রেকর্ডটি গড়েছিলেন। আর ফাতি রেকর্ড করলেন ১৭ বছর ৩১১ দিনে। একই সঙ্গে নেশনস লিগে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতার রেকর্ডটিও এখন তার দখলে।

অবশ্য ‘সর্বকনিষ্ঠ’ তকমা গায়ে লাগিয়ে এর আগেও রেকর্ড বুকে তার নামটি যুক্ত হয়েছে। চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসেও সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা তিনি। এমনকি লা লিগায় তিনি বার্সারও সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা।

ক্লাব ফুটবলেই যার এত এত আলো ঝলমলে পারফরম্যান্স তিনি জাতীয় দলেও নিষ্প্রভ থাকেননি। ইউক্রেনের বিপক্ষে সবচেয়ে কম বয়সে নেশনস লিগে শুরুর একাদশে খেলতে নেমে সূচনা থেকেই বাম প্রান্ত থেকে আক্রমণ শাণিয়েছেন ফাতি। তার কল্যাণে ম্যাচ শুরুর ৩ মিনিটের মাথায় প্রথম পেনাল্টি পেয়ে যায় স্পেন। স্পট কিক থেকে যার স্কোরটি করেছেন সের্হিয়ো রামোস।

এরপর ফাতি বেশ কয়েক বার আক্রমণ শাণিয়েছিলেন ঠিকই। কিন্তু তার গোলের চেষ্টাগুলো জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। তবে ২৯ মিনিটে আবারও হেড করে ব্যবধান বাড়িয়ে নেন রামোস। তার ৩ মিনিট পর অবশেষে গোলের দেখা পান ফাতি। রেগুইলনের ক্রস থেকে গোলটি করেন তিনি।

প্রথমার্ধেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলা স্পেন চতুর্থ গোলটি পায় ৮৪ মিনিটে। দুর্দান্ত ভলিতে গোলটি করেছেন ফেররান তোরেস। আগের ম্যাচে ড্র করে এই ম্যাচে জয়ের ফলে গ্রুপে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে স্পেন। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইউক্রেন।

এদিকে নেশনস লিগে দুই আসর মিলিয়ে এখনও জয় বঞ্চিতই থাকলো জার্মানি। স্পেনের সঙ্গে প্রথম ম্যাচ ড্রয়ের পর সুইজারল্যান্ডের সঙ্গেও তারা ড্র করেছে ১-১ গোলে। জার্মানিকে ম্যাচের ১৪ মিনিটে এগিয়ে নিয়েছিলেন ইলকায় গুন্দোয়ান। কিন্তু ম্যাচের ৫৭ মিনিটের মাথায় সুইজারল্যান্ডকে সমতায় ফেরান সিলভান উইডমার।

জার্মানি আগের আসরে চার ম্যাচের একটিতেও জিততে পারেনি।








Leave a reply