প্রস্তুতিতে সবার চেয়ে এগিয়ে সাকিব

|

সাংবাদিকদের ফোনে ব্যতিব্যস্ত হাবিবুল বাশারের জিজ্ঞাসা, ‘সাকিবকে নিয়ে সবাই এত চিন্তিত কেন?’ মাত্রই আইসিসির নিষেধাজ্ঞা শেষ করা অলরাউন্ডারের ফিটনেস পরীক্ষা নিয়ে নানা প্রশ্ন গত কয়েক দিন ধরেই শুনতে হচ্ছে হাবিবুলকে। এত দিন ধরে সাকিবকে চেনার অভিজ্ঞতায় অবশ্য উদ্বেগের কিছুই দেখছেন না এই নির্বাচক, ‘‘সাকিব হলো ‘ছুপা রুস্তম’। কেউ বুঝবেই না যে ও নিজেকে কিভাবে তৈরি রেখেছে। ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হলে আমি নিশ্চিত যে সে প্রথম কয়েকজনের মধ্যেই থাকবে।’’

সম্প্রতি নিজের শিক্ষালয় বিকেএসপিতে সাকিবের নিবিড় অনুশীলনের একটি দিন দেখে আসার পর সে বিষয়ে আরো বেশি আশ্বস্ত হাবিবুল। শ্রীলঙ্কায় তিন টেস্টের সফর সামনে রেখে সেখানেই প্রস্তুতি নিতে গত ২ সেপ্টেম্বর ভোররাতে দেশে ফিরেছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টার বয়। ৫ সেপ্টেম্বর থেকে নিজের ক্রিকেট গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিম ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের অধীনে অনুশীলনও শুরু করেন। যদিও তখনো নিষেধাজ্ঞা না ওঠায় অনুশীলনের ওই পর্ব নিয়ে অনেক রাখঢাক ছিল সংশ্লিষ্টদের মধ্যে।

এরই মধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) তরফ থেকে যথাসাধ্য সহায়তাও অব্যাহত ছিল। একদিন যেমন মিরপুরে জাতীয় ক্রিকেটারদের অনুশীলনে থ্রো ডাউন বিশেষজ্ঞ রমজানের অনুপস্থিতির কারণ খুঁজতে গিয়ে জানা যায় তিনি তখন বিকেএসপিতে। ডগস্টিক দিয়ে তাঁর ছুড়ে মারা বলে সেদিন অনুশীলন করছিলেন সাকিব। এমনকি হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের (এইচপি) বোলারদেরও পাঠানো হয়েছিল বোলিং করতে। যদিও ওই সময় মুখে কুলুপ এঁটে রেখেছিলেন তাঁর কোচরা। তবে ২৮ অক্টোবর নিষেধাজ্ঞা শেষ হতেই বিকেএসপিতে সেই দিনগুলোর ভিডিও ফুটেজ সরবরাহেও আর কোনো দ্বিধা থাকেনি তাঁদের।

সাকিব মুক্ত হওয়ার পর নিষিদ্ধ থাকার সময় তাঁর অনুশীলন দেখতে যাওয়ার বিষয়টি জানাতেও আর কোনো বাধা নেই হাবিবুলের। অবশ্য তাঁর যাওয়াটা ছিল দায়িত্বেরই অংশ। কারণ শ্রীলঙ্কা সফর তখনো স্থগিত হয়নি। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে তাঁর ক্রিকেটে ফেরার ব্যাপারটিও ঠিকঠাক ছিল। কাজেই এর আগে সাকিব কী অবস্থায় আছেন, তা সরেজমিন দেখার তাগিদ থেকেই বিকেএসপিতে ছুটে গিয়েছিলেন হাবিবুল। যদিও সেখানে তিনি গিয়েছিলেন অগোচরেই, ‘আমি নিজেও একদিন বিকেএসপিতে গিয়েছিলাম। কাউকে বলে যাইনি অবশ্য। আমি আমার মতো করেই সেখানে গিয়েছিলাম।’

বিকেএসপি গিয়ে এই নির্বাচকের মনে হয়েছে, অন্তরালে থেকেই ফেরার জন্য যথার্থ প্রস্তুতিটা নিয়ে রেখেছেন ২০১৯ বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফরম করা অলরাউন্ডার, ‘ও সবার চেয়ে ভালো অনুশীলন করেছে। মিরপুরে তো সবাই সম্মিলিত অনুশীলন করছিল। ও সেখানে পুরো একটি মাঠ নিয়ে, সেন্টার উইকেট নিয়ে ও হাই পারফরম্যান্সের পেস বোলারদের নিয়ে অনুশীলন করছিল।’

শ্রীলঙ্কা সফর স্থগিত হওয়ায় আবার যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে ফিরে যাওয়া সাকিব দেশে ফিরছেন এই সপ্তাহের শেষেই। এর আগে বিকেএসপির অনুশীলন থেকেই তিনি নির্বাচকদের জানিয়ে গেছেন, ‘একা একা সারা দিন ধরে সব কিছু অনুশীলন করেছে সে। শ্রীলঙ্কা যাওয়ার জন্য যে খাটুনিটা সে খাটছিল, এর চেয়ে কঠোর পরিশ্রম আর হয় না।’সে খাটুনি দেখার পর সাকিবের ফিটনেস নিয়ে তাই নিঃসংশয় হাবিবুলও।








Leave a reply