প্রত্যাশিত জয়ে চেলসির মৌসুম শুরু

|

গত কয়েকবছর গ্রীষ্মকালীন দলবদলের বাজারে মোটামুটি চুপ ছিল চেলসি। তবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের (ইপিএল) দলটি এবার বেশ ভালই খরচ করেছে। দলের শক্তি বাড়িয়ে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দেয়া ব্লুজরা জয় দিয়েই নতুন মৌসুম শুরু করেছে। ব্রাইটন অ্যান্ড হোভ অ্যালবিওনকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।
সোমবার রাতে প্রতিপক্ষের মাঠে খেলতে নেমেছিল চেলসি। দলের হয়ে প্রথম গোল করেন জর্জিনিয়ো। মূলত ব্রাইটনের গোলরক্ষক ম্যাথিউ রায়ানের ভুলের সুযোগ কাজে লাগায় ব্লুজরা। টিমো ভেরনারকে আটকাতে গিয়ে একরকম বাধ্য হয়েই ফাউল করেন ম্যাথিউ। ম্যাচের ২৩তম মিনিটে স্পট কিক থেকে দলকে এগিয়ে নেন জর্জিনিয়ো।

যোগ করা সময়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করার দারুণ এক সুযোগ পেয়েছিলেন চেলসির হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা ভেরনার। তবে এই জার্মান ফরোয়ার্ডের শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দেন ম্যাথিউ।

দ্বিতীয়ার্ধের নবম মিনিটে স্বাগতিকরা সমতায় ফেরে। ডি-বক্সের বাইরে থেকে দারুণ এক জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড ত্রোসার। অবশ্য স্বাগতিকদের এই স্বস্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। মাত্র দুই মিনিট পরই এগিয়ে যায় চেলসি। ইংলিশ ডিফেন্ডার জেমসের প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে নেয়া বুলেট গতির শট আটকাতে পারেননি ব্রাইটন গোলরক্ষক।

ম্যাচের ৬৬তম মিনিটে সৌভাগ্যসূচক গোলে ব্যবধান বাড়িয়ে নেয় চেলসি। কর্নার থেকে ফরাসি ডিফেন্ডার জুমার নিচু শট ঠেকাতে গিয়ে উল্টো নিজেদের জালে বল জড়িয়ে দেন ব্রাইটনের সেন্টার-ব্যাক অ্যাডাম ওয়েবস্টার। বাকি সময়ে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ চললেও কেউই উল্লেখযোগ্য সুযোগ তৈরি করতে পারেনি।

২০১৯-২০ মৌসুমে এই মাঠ থেকে ১-১ ড্র করে ফিরেছিল চেলসি। এবারের জয় তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেবে নিশ্চিত।

ম্যাচের আগে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে হাঁটু গেড়ে বসে প্রতিবাদ জানায় দু’দল। পুর্ব সাসেক্সের অ্যামেরিকান এক্সপ্রেস স্টেডিয়ামে এরপর আর কোন কিছুতেই মিল খুঁজে পাওয়া যায়নি তাদের মধ্যে। কিক অফ হতেই আক্রমণে উঠে চেলসি।

মাঝ মাঠের আধিপত্যও নিয়ে নেয় অতিথিরা। ফল আসতে দেরি হয়নি। ২৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে স্কোর করেন জর্জিনহো। তবে বিরতি থেকে ফিরে গোল শোধ দিয়ে দেয় স্বাগতিকরা। ব্রাইটনকে সমতায় ফেরান ট্রোসার্ড। এরপরই বাঁধে বিপত্তি। জয়ের নেশায় উন্মত্ত হয়ে উঠে ল্যাম্পার্ড বাহিনী।

৫৬ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে বুলেট গতির শটে দলকে এগিয়ে দেন জেমস। আর ঠিক ১০ মিনিট পর ব্রাইটনকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দেয় জৌমার গোল। ৩-১ এর দুর্দান্ত জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চেলসি।








Leave a reply