নয়া লুকেও ধরা দিল না ব্যাটিং ফর্ম, ম্যাচ জিতে মানরক্ষা করলেন কার্তিক

|

কায়রন পোলার্ডের ‘ব্রেক দ্য বিয়ার্ড’ নিয়েছিলেন ম্যাচের আগে। নয়া লুকে ফর্মে ফিরতে মরিয়া নাইট অধিনায়ককে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছিল ব্যাপক চর্চা। ফুল বিয়ার্ড থেকে অ্যাঙ্কর শেপ বিয়ার্ডে নিজের লুক পরিবর্তনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন দীনেশ কার্তিক। অনুরাগীরা প্রত্যাশা করছিলেন নতুন লুকেই বুঝি ফর্মে ফিরবেন অধিনায়ক।

ডিকে’র নতুন লুক দেখে হার্দিক লেখেন, ‘মেরা কিউটি।’ কিন্তু না, নয়া লুকেও ব্যাট হাতে মেজাজে পাওয়া গেল না নাইট অধিনায়ককে। চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে ব্যাট হাতে আবারও ব্যর্থ দীনেশ কার্তিক। বুধবার আবুধাবিতে সিএসকে’র বিরুদ্ধে ব্যাটিং অর্ডারে নাইট শিবিরে ব্যাপক রদবদল। নিজেকে ব্যাটিং অর্ডারে ৭ নম্বরে নামিয়ে আনলেন ডিকে। কার্তিক যখন নামলেন হাতে তখনও পাঁচ ওভার মতো বাকি। সুযোগ ছিল ঝোড়ো ইনিংসে দলের রান অনেকটা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার। কিন্তু ১১ বলে ১২ রানে ফিরলেন অধিনায়ক।

ব্যস, সোশ্যাল মিডিয়ায় কার্তিকের নয়া লুক ট্রল হতে লাগল। ক্ষুব্ধ অনুরাগীরা কার্তিকের উদ্দেশ্যে লিখলেন, ‘ইয়ে ম্যায় কার লেতা হু, তাব তক তুম যাগে ড্রিম ইলেভেন পে আপনা টিম বানাও।’ অর্থাৎ, ড্রিম ইলেভেনের বিজ্ঞাপনে কার্তিকের কথা নকল করে তাঁকে ট্রল শুরু করেন অনুরাগীরা। রাহুল ত্রিপাঠির ৮১ রানে চেন্নাই সুপার কিংসকে ছুঁড়ে দেওয়া ১৬৮ রানও খুব একটা নিরাপদ ছিল না।

রান তাড়া করতে নেমে চেন্নাই সুপার কিংসের রান ১৩ ওভারে ছিল ২ উইকেটে ১০১। নাইটদের আরও একটা হার অবশ্যম্ভাবী জেনে অধিনায়কের আরও একপ্রস্থ সমালোচনার জন্য যখন নাইট অনুরাগীরা প্রস্তুত হচ্ছেন, ঠিক তখনই ঘুরল খেলা। ১৪তম ওভারের প্রথম বলে ফিরলেন অর্ধশতরানকারী শেন ওয়াটসন। তবে তখনও ম্যাচ কোনওমতেই কেকেআরের অনুকূলে ছিল না। কিন্তু অসম্ভবটা সম্ভব হল। আর সে কারণে কৃতিত্ব অবশ্যই প্রাপ্য নাইট অধিনায়কের।

সিএসকে’র বিরুদ্ধে বল হাতে দারুণ সফল নারিনের ওভার শেষদিকে বাঁচিয়ে রেখে যেভাবে তাঁকে ব্যবহার করলেন কার্তিক, তা প্রশংসার যোগ্য। একইসঙ্গে ডেথ ওভারগুলোতে দারুণ ব্যবহার করলেন বরুণ চক্রবর্তী কিংবা আন্দ্রে রাসেলকে। কার্তিকের বোলিং পরিবর্তন এবং সর্বোপরি তাতে মর্যাদা দিয়ে নারিন-রাসেলদের পারফরম্যান্স নিশ্চিত হারা ম্যাচে জয় এনে দিল নাইটদের। হাতে পর্যাপ্ত উইকেট থাকা সত্ত্বেও ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫৭ রানেই থমকে গেল চেন্নাইয়ের ইনিংস।

১০ রানে ম্যাচ জিতিয়ে এযাত্রায় অধিনায়ককে বাঁচিয়ে দিলেন বোলাররা। ব্যাট হাতে আরও একবার ব্যর্থ কার্তিক নতুন লুকে নজর কাড়লেন অধিনায়কত্বে। ম্যাচ শেষে তাঁর অধিনায়কত্বে পঞ্চমুখ অনুরাগীরাও।








Leave a reply