নেইমারের সাক্ষাৎকার চুরি ?

|

একের পর এক নেতিবাচক কারণে সংবাদ শিরোনাম হচ্ছেন নেইমার। সাম্প্রতিক সময়ে ওঠা ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত জীবনের সেসব বিতর্কিত ঘটনার ভেতরের সত্যটা মানুষকে জানানোর জন্যই ব্রাজিলের এক টেলিভিশন চ্যানেলকে দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন তিনি। চুরি হয়ে গেছে নেইমারের সেই সাক্ষাৎকার, বড় বিচিত্র এই কাণ্ডই ঘটেছে ব্রাজিলে। চোরের দল চুরি করেছে নেইমারের সাক্ষাৎকার।

গতকাল সোমবার ব্রাজিলিয়ান টেলিভিশন শো ‘অ্যাকুই না ব্র্যান্ড’-এ নেইমারের সেই সাক্ষাৎকারটি সম্প্রচার করার কথা ছিল। ফুটবলপ্রেমীদের প্রত্যাশা ছিল অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার।

নেইমার নিজেও চেয়েছিলেন ভেতরের সত্যটা সবাইকে খুলে বলতে। কিন্তু, প্রচারের আগেই নেইমারের সেই সাক্ষাৎকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশ চুরি হয়ে গেছে!

সময়টা আসলে বড় খারাপ যাচ্ছে ব্রাজিল তারকার। চোটের কারণে মৌসুমের গুরুত্বপূর্ণ সময়টা মাঠের বাইরে কাটাতে হয়েছে। চোট থেকে ফিরে স্বপ্ন ছিল দেশের হয়ে কোপা আমেরিকায় খেলার। পুনরায় চোট পাওয়ায় নেইমারের সেই স্বপ্নও ধুলোর সঙ্গে মিশে যায়। মাঝে প্রতিপক্ষ দলের এক সমর্থককে ঘুষি মেরে নিষিদ্ধও হন।

যে ঘটনার জের ধরে ব্রাজিল জাতীয় দল থেকে তার অধিনায়কত্ব কেড়ে নেয়া হয়েছে। মাঠের এই নেতিবাচক সংবাদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মাঠের বাইরের ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও নেতিবাচক কারণে খবর হন। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এরই মধ্যে আবার শুরু হয়েছে দলবদল ইস্যুতে ক্লাব পিএসজির সঙ্গে যুদ্ধ।

২০১৭ সালে অনেক নাটক করে বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে এসেছেন। এখন আবার সেই বার্সেলোনাতেই ফিরে যাওয়ার জন্য নাটক শুরু করেছেন। বিদ্রোহ করে পিএসজির প্রাক-মৌসুম প্রস্তুতি-ক্যাম্পে নির্ধারিত সময়ে যোগ দেননি তিনি। যার শাস্তি হিসেবে পিএসজি তার ‘ভালো আচরণে’র একমাসের বোনাস কেটে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত জীবনের এসব বিতর্কিত বিষয় নিয়েই সাক্ষাৎকারটি দিয়েছিলেন নেইমার। সাক্ষাৎকারটি প্রথমে প্রচার করার কথা ছিল গত শুক্রবার। পরে তারিখ বদলে সোমবার প্রচার করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। গতকাল তার সাক্ষাৎকার প্রচার করাও হয়েছে।

তবে আংশিক। সাক্ষাৎকারের মূল যে অংশটুকু, সেটুকুই চুরি হয়ে গেছে! নেইমার ইনস্টিটিউট ও কোপা আমেরিকা নিয়ে বলা কথাগুলোই কেবল প্রচার করা সম্ভব হয়েছে।

ধর্ষণের অভিযোগ-মামলা, দলবদল নিয়ে পিএসজির সঙ্গে তিক্ততা অন্য সব বিতর্কিত বিষয় নিয়ে কথা বলা অংশুটুকু চুরি করে নিয়ে গেছে চোরের দল।

সাও পাওলোতে গত বৃহস্পতিবার প্রাথমিকভাবে সাক্ষাৎকারের কিছু অংশ ভিডিও করা হয়। তবে সাক্ষাৎকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশটুকুর ভিডিও ধারণ করা হয় গত শনিবার (১৩ জুলাই)। যা রাখা হয়েছিল একটা মেমোরি কার্ডে। গুরুত্বপূর্ণ অংশ থাকা সেই মেমোরি কার্ডটিই চুরি করেছে চোর!

নেইমারের সাক্ষাৎকার নেয়া প্রতিবেদক জোয়াও পাওলো ভারগুইরো বলেছেন, সাক্ষাৎকার নিয়ে ফিরে আসার পর দেখেন, গাড়ির যে বাক্সটিতে মেমোরি কার্ডটি রাখা হয়েছে, সেটির তালা ভাঙ্গা, ‘একটা কার্ড ছিল। ওটাই ওরা নিয়ে গেছে। আমরা নেইমার ইনস্টিটিউটের পরিচালকের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। তার সঙ্গে কথা বলেই নেইমারের বিশেষ সাক্ষাৎকারটা নিয়েছিলাম। তার ভবিষ্যতের বিষয়ে অনেক আলোচনা ছিল সেখানে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে সাক্ষাৎকারের সেই গুরুত্বপূর্ণ অংশটিই চুরি হয়েছে।’








Leave a reply