মাতৃভাষা দিবসে একসারিতে ১৯১ দেশ

|

অন্যান্য বছরের মতো এবারও আন্তর্জতিক মাতৃভাষা দিবসে প্রতিটি জাতির মায়ের ভাষাকে মর্যাদা জানাতে একসারিতে এসে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৯১ দেশ। ‘শিক্ষা ও সমাজ ব্যবস্থায় অন্তর্ভূক্তির জন্য বহুভাষিকতাকে উত্সাহিত করা’র প্রতিপাদ্য নিয়ে এসব দেশে পালিত হচ্ছে দিবসটি। এবারের মাতৃভাষা দিবসে করোনার কারণে বহুভাষিক শিক্ষাকে গুরুত্ব দিতে শিক্ষক, নীতিনির্ধারকদের প্রতি আহ্বানও জানানো হয়েছে।

১৯৯৯ সালে ১৭ নভেম্বর একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। এই মর্যাদা অর্জিত হয় ইউনেস্কোর প্যারিস সম্মেলনে। এতে বিশ্ব দরবারে বিশেষ মর্যাদা পায় বাংলা ভাষা। এরপর ২০০২ সালে জাতিসংঘও এ দিবসকে স্বীকৃতি দেয়। সেই থেকে জাতিসংঘের পাশাপাশি যুক্তরাজ্য, ইতালি, রাশিয়াসহ ১৯১ দেশে পালিত হয়ে আসছে দিবসটি।

মাতৃভাষা নেই এমন দেশও পালন করছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। এর মধ্যে অন্যতম কানাডা।

আন্তর্জতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রবিবার সব ভাষাভাষিদের প্রতি শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে তিনি এ শুভেচ্ছা জানিয়ে পোস্টার প্রকাশ করেন।

বিশ্বে ভাষা আছে ৭ হাজার ১১৭টি। সবচেয়ে বেশি মানুষ কথা বলেন ইংরেজিতে। ১৪৬ দেশের একশ ১৩ কোটি ২০ লাখ মানুষ এ ভাষা ব্যবহার করেন।

দ্বিতীয় অবস্থানে চীনের ম্যান্ডারিন ভাষা। এ ভাষায় কথা বলা মানুষের সংখ্যা একশ ১১ কোটি ১৭ লাখ। তৃতীয় অবস্থানে হিন্দি ভাষা, ব্যবহারকারীর সংখ্যা সাড়ে ৬১ কোটি। সপ্তম অবস্থানে আছে বাংলা ভাষা। এ ভাষায় কথা বলেন সাড়ে ২৬ কোটি মানুষ।








Leave a reply