বুধ শূন্যে পৌঁছানোর কারণে অনেক জায়গায় বৃষ্টিপাত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে

|

এটি পুরো উত্তর ভারতে হিমশীতল। বুধ অনেক শহরে শূন্যের কাছাকাছি পৌঁছেছে। রাজধানী দিল্লিতে শীত গত ১২০ বছরের রেকর্ডকে ভেঙে দিয়েছে।

নয়াদিল্লি: উত্তর ভারতে এটি হিমশীতল। বুধ অনেক শহরে শূন্যের কাছাকাছি পৌঁছেছে। রাজধানী দিল্লিতে শীত গত ১২০ বছরের রেকর্ডকে ভেঙে দিয়েছে। আজ সকালে লোধি রোডে তাপমাত্রা ছিল ১.৭ ডিগ্রি, আয়া নগর ১.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়া অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, আগামী দু-তিন দিন একই অবস্থা চলবে। এ ছাড়া ৩১ ডিসেম্বর থেকে ২ জানুয়ারি পর্যন্ত দিল্লিতে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

এর বাইরে পাঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান, উত্তর প্রদেশের অনেক শহরে তাপমাত্রা ৪ ডিগ্রির নীচে। যার কারণে মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছে সাধারণ জীবন। রাজস্থানের তীব্র শীতে হিমশীতল বরফ মাউন্ট আবুর অনেক জায়গায় নালা জমে গেছে। সমতল ভূমিতে শিশির হিমশীতল, পার্কের ঝর্ণাও হিমশীতল।

রাজ্যের অন্যান্য অনেক শহরে বুধ শূন্যের কাছাকাছি পৌঁছেছে। জম্মু ও কাশ্মীরেও শীতের প্রকোপ রয়েছে। শ্রীনগরের বিখ্যাত ডাল লেকের এক অংশে তুষার একটি স্তর হিমশীতল হয়ে গেছে এবং লোকেরা পানিতে সমস্যা নিয়েছে। হিমাচল প্রদেশের লাহুল স্পিতিতে হিমশীতল শীত রয়েছে। পারদ মাইনাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছেছে।

রুটের পরিবর্তন

শনিবার সকালে ঘন কুয়াশার কারণে চারটি বিমান দিল্লি বিমানবন্দর থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল। বিমানবন্দরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বিমানটি ক্যাট ৩ বি অবস্থার অধীনে উড়ছে, যার অর্থ রানওয়ের দৃশ্যমানতা ৫০ মিটার থেকে ১৭৫ মিটারের মধ্যে। “আজ সকালে বিমানবন্দর থেকে চারটি বিমানের বিমানটি আট থেকে ৫২ মিনিটের জন্য পরিবর্তন করা হয়েছে,” এই কর্মকর্তা জানিয়েছেন।








Leave a reply