প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের মায়ের ইন্তেকাল

|

মা মাজেদা বেগমের সঙ্গে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের মা মাজেদা বেগম ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গতকাল সোমবার রাত ১১টা ৫৩ মিনিটে খুলনার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ধক্যজনিত কারণে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ইফতেখার হোসেন এনটিভি অনলাইনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মাজেদা বেগমের বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। তাঁর পাঁচ ছেলে ও দুই মেয়ে। তিনি অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। জীবদ্দশায় তিনি তাঁর সন্তানদের উচ্চশিক্ষা ও মৌলিক ইসলামী শিক্ষায় শিক্ষিত করেছেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আমার মায়ের আত্মার মাগফেরাত কামনায় সবার কাছে দোয়া কামনা করছি। মাকে যেনো আল্লাহ ক্ষমা করে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করেন। আমার মায়ের জন্য দোয়া করবেন।’

আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার তারাবুনিয়া ঈদগাহ মাঠে মরহুমার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুতে ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে এবং মন্ত্রণালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পক্ষ থেকে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ।

শ ম রেজাউল করিম একজন বাংলাদেশি রাজনীতিবিদ ও একাদশ জাতীয় সংসদ সদস্য। শ ম রেজাউল করিম পিরোজপুর-১ আসন থেকে ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

শ ম রেজাউল করিমের জন্ম পিরোজপুর জেলার নাজিরপুর উপজেলায়।তাঁর পিতা মোঃ আব্দুল খালেক শেখ ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং রাজনীতিবিদ। তিনি মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ১৯৭৭ সালে বরইবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় হতে এস এস সি, ১৯৭৯ সালে এইচ.এস.সি, ১৯৮৩ সালে এলএল.বি ডিগ্রী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে এম.এস.এস ডিগ্রী অর্জন করেন।।[৩][৪]

সাবেক ছাত্রনেতা ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শ.ম রেজাউল করিম ব্যক্তিগত জীবনে একজন আইনজীবী।








Leave a reply