জিনোম সম্পাদনা পদ্ধতির বিকাশ ঘটিয়ে নোবেল পেলেন দুই নারী

|

রসায়ন শাস্ত্রে এবারের নোবেল পুরস্কার পেলেন একজন মার্কিন ও একজন ফরাসি বিজ্ঞানী। জিনোম সম্পাদনার একটি পদ্ধতির বিকাশের জন্য তাঁদের যৌথভাবে ২০২০ সালে রসায়নের নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত দুজন হলেন ফরাসি নাগরিক এমমানুয়েল চার্পেনিয়ার এবং মার্কিন নাগরিক জেনিফার এ দৌদনা।

বুধবার (৭ অক্টোবর) সুইডেনের স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ৪৫ মিনিটের দিকে (বাংলাদেশ সময় বিকেল প্রায় পৌনে ৪টা) রসায়নে নোবেল বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করে দ্য রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস।

এর আগে, ৬ অক্টোবর পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল জয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। পদার্থবিজ্ঞানে বিশেষ অবদানের জন্য এ বছর তিনজনকে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। তারা হলেন— রবার্ট পেনরোজ, রেইনহার্ড গেনজেল এবং আন্দ্রে ঘেজ। এর মধ্যে রজার পেনরোজ পেয়েছেন পুরস্কারটির অর্ধেক এবং বাকি দুজন পেয়েছেন বাকি অর্ধেকের অর্ধেক করে।

মহাবিশ্বের অন্যতম বিস্ময় ব্ল্যাকহোলের গঠনে সাধারণ আপেক্ষিকতার ভূমিকা নিয়ে গবেষণার জন্য নোবেল পুরস্কারে অর্ধেকটা পেয়েছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক রজার পেনরোজ। নোবেল পুরস্কারের অর্থমূল্যের অর্ধেকটাই পাবেন তিনি৷ বাকি অর্থের অর্ধেক পাবেন জার্মানির মাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট ফর এক্সট্রাটেরেস্ট্রিয়াল ফিজিক্সের গবেষক রাইনহার্ড গেনজেল ও ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দ্রেয়া ঘেজ৷ তাঁরা দুজন আমাদের গ্যালাক্সির কেন্দ্রে অদৃশ্য এবং ভারী এক ধরনের বস্তু (সুপারম্যাসিভ কমপ্যাক্ট অবজেক্ট) আবিষ্কার করেছেন৷

এদিকে ৫ অক্টোবর চিকিৎসায় নোবেল পুরস্কার দেওয়ার মাধ্যমে এ বছরের প্রথম বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। চিকিৎসায় বিশেষ অবদানের জন্য এ বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন তিনজন। হেপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাস আবিষ্কারের জন্য তাদের এ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে। পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন— হার্ভে জে. অল্টার, মাইকেল হাউটন এবং চার্লস এম রাইস।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) সাহিত্যে, শুক্রবার (৯ অক্টোবর) শান্তিতে এবং আগামী সোমবার (১২ অক্টোবর) অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করা হবে।








Leave a reply