ক্যামেরা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে নজরদারি করছে ইনস্টাগ্রাম!

|

জুলাইয়ে অভিযোগটা উঠেছিল ফেসবুকের বিরুদ্ধে। আবার সেই একই অভিযোগ উঠল বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির বিরুদ্ধে। ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইনস্টাগ্রাম অ্যাপের সাহায্যে ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনের ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে রীতিমতো ভিডিও নজরদারি বা এক রকম গোয়েন্দাগিরি করা হচ্ছে!

তবে অ্যাপটির মালিকানা প্রতিষ্ঠান ফেসবুকের নজরদারির ব্যাপারটি অস্বীকার করলেও দায় পুরোপুরি এড়িয়ে যায়নি। এ ধরনের ঘটনার জন্য তারা বাগ বা কারিগরি ত্রুটিকে দায়ী করেছে। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির বাসিন্দা ব্রিটনি কন্ডিটি সান ফ্রান্সিসকোর ফেডারেল কোর্টে অভিযোগ করেন, ইনস্টাগ্রাম অ্যাপ ব্যবহারের সময় খেয়াল করেন যে তাঁর অজান্তেই হ্যান্ডসেটের ক্যামেরার নিয়ন্ত্রণ ও গুরুত্বপূর্ণ ডাটা অন্য কেউ সংগ্রহ করছে।

ইন্সটাগ্রাম ফেসবুক, টুইটার, টাম্বলার এবং ফ্লিকার মত অনলাইনে ছবি এবং ভিডিও শেয়ার করার এমন একটি অনলাইন মোবাইল ফটো শেয়ারিং, ভিডিও শেয়ারিং এবং সামাজিক নেটওয়ার্কিং পরিসেবা। ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে ছবি এবং ১৫ সেকেন্ডের দৈঘ্যের ভিডিও আপলোড করা যায। প্রতিদিন ৩০০ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ ইন্সটাগ্রাম ব্যবহার করে যারা কিনা ফটো শেয়ার করে থাকে। প্রতিদিন ৭০ মিলিয়ন স্থিরচিত্র এবং ভিডিও শেয়ার করা হয় ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে।[৩]

ইতিহাস
2010: সূচনা ৫ ই মার্চ, ২০১০-তে সিস্ট্রোম বার্বনে কাজ করার সময় বেসলাইন ভেঞ্চারস এবং অ্যান্ড্রেসন হরোভিটসের সাথে একটি 500,000 ডলার তহবিল বন্ধ করেছিল।জোশ রিডেল অক্টোবরে কমিউনিটি ম্যানেজার হিসাবে এই সংস্থায় যোগদান করেছিলেন, শাইন সুইনি নভেম্বরে ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে যোগ দিয়েছিলেন,এবং জেসিকা জোলম্যান আগস্ট ২০১১-তে একটি সম্প্রদায় প্রচারক হিসাবে যোগদান করেছিলেন।

প্রথম ইনস্টাগ্রাম পোস্টটি ছিল পিয়ার 38-এ সাউথ বিচ হারবারের একটি ছবি, মাইক ক্রেইগার 16 জুলাই, 2010-এ 5: 26 এ পোস্ট করেছেন।

কেভিন সিস্ট্রোমের প্রথম পোস্টটি, যা কয়েক ঘণ্টা পরে এসেছিল (9:24 অপরাহ্ন), এর ইউআরএলটিতে বর্ণমালার আগের চিঠির কারণে ভুলভাবে প্রথম ইনস্টাগ্রামের ছবি হিসাবে চিহ্নিত করা হয়েছে এই ছবিতে মেক্সিকো এবং সিস্ট্রমের গার্লফ্রেন্ডের পায়ে একটি কুকুর দেখানো হয়েছে। ছবিটি ইনস্টাগ্রামের এক্স-প্রো 2 ফিল্টার দিয়ে গেছে

October অক্টোবর, ২০১০ এ ইনস্টাগ্রাম আইওএস অ্যাপটি অ্যাপ স্টোরের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হয়েছিল।








Leave a reply