আলিয়া ভট্ট,বোন শাহিনের হতাশার কথা বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন ।

|

বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভট্ট তার বোন শাহীনকে নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। যেখানে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি শাহিনের হতাশার কথা উল্লেখ করেছিলেন।


বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভট্ট তার বোন শাহীনকে নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে এসেছিলেন। যেখানে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি শাহিনের হতাশার কথা উল্লেখ করেছিলেন। যার পরে তিনি সংবেদনশীল হয়ে পড়েন। আলিয়াকে কাঁদতে দেখে শাহীন তাদের চুপ করার চেষ্টা করেছিল কিন্তু কান্নাকাটি থেকে নিজেকে আটকাতে পারেনি। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ভাইরাল হয়েছে ।


আলিয়া ভট্ট এবং শাহিন সুন্দর ‘আমরা মহিলা’ ইভেন্টে উপস্থিত হয়েছিল। হ্যাঁ, আলিয়াকে সাদা রঙের কলার পোশাক পরা দেখা গেছে। একই সঙ্গে শাহান গোলাপী রঙের কোট-প্যান্ট এবং সরিষার রঙের টি-শার্টে উপস্থিত হয়েছিল।


আসুন আমরা আপনাকে বলি যে শাহীন ভট্ট হলেন মহেশ ভট্ট এবং সনি রাজদানের বড় মেয়ে। শাহীন প্রায় ১২ বছর বয়সে হতাশার শিকার হয়েছিল। আলিয়া লড়াইয়ে সবচেয়ে বেশি সাহায্য করেছেন। শাহীন তার হতাশা নিয়ে একটি বইও লিখেছিলেন। যার নাম ছিল “আমি কখনও বিনা অসন্তুষ্ট হই”।


আলিয়া বেশিরভাগ সময় তার বোন সম্পর্কে কথা বলতে থাকে। সম্প্রতি শাহিনের জন্মদিনে শৈশবের কয়েকটি ছবি শেয়ার করে তিনি একটি আবেগময় নোট লিখেছিলেন। তিনি লিখেছেন, “এখন সেই মুহুর্তে আমি আমার বোনের জন্মদিনের জন্য সঠিক ক্যাপশন লিখতে লড়াই করছি” ” আমি এটি বারবার লিখে মুছে ফেলছি এবং কারণটি হ’ল আমি প্রথম থেকেই শাহিনের মতো সুন্দর লেখক নই। আমরা এমন একটি ভাষায় কথা বলি যা বুঝতে পারে না ।








Leave a reply