আত্মনির্ভর হওয়ার পথে আরো এক কদম; ভারতের তৈরি বাইক এবার ছুটবে ইউরোপের রাস্তায়

|

আত্মনির্ভরশীল হওয়ার পথে আরো এক কদম ভারতের (India)। এতদিন সাধারণত বিদেশ থেকে ভারতে বাইক আসত। এবার সেই হিসেব উল্টে দিয়ে ইউরোপের রাস্তায় ছুটবে ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ বাইক Jawa।

Jawa standard এর বাইক লঞ্চ হল ইউরোপের বাজারেও। একই রকম দেখতে হলেও ইউরোপের এই বাইকটির নাম 300 CL৷ ভারত ও ইউরোপের স্ট্যান্ডার্ড আলাদা হওয়ায় এই বাইকে বেশ কিছু পরিবর্তন করতে চলেছে jawa।

ইউরোপের আইন মেনে ভারতের bs6 এর বদলে এই বাইকে থাকছে euro4 ইঞ্জিন। 300 CL বাইকটিতে রয়েছে ২৯৪ সিসির একটি লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। থাকছে ৭ হাজার আরপিএম-এ ২২.৫ বিএইচপি।

300 CL বাইকটিতে টর্ক রয়েছে ৫৭৫০ আরপিএম-এ ২৫ এনএম। যদিও এই ক্ষেত্রে ভারতীয় বাইকটি অনেকবেশি শক্তশালী। জাভা 300 সিএলে সিঙ্গল চ্যানেল এবিএস সহ ডিস্ক এবং ড্রাম ব্রেকরয়েছে।

পাশাপাশি , ভারতীয় মডেল দ্বৈত চ্যানেল এবিএসের সাথে জোড়া ডিস্ক ব্রেক পেয়েছে। এ ছাড়া বাইকের সমস্ত যন্ত্রাংশই ভারতীয় বাইকটির মতো। এটি পিছনে 18 এবং 17 ইঞ্চি চাকা এবং মনোশক সহ সামনে টেলিস্কোপিক ফোর্ক থাকছে।

মোটর সাইকেল, মোটর বাইক, বাইক (ইংরেজি: motorcycle, motorbike, bike, moto) যন্ত্রচালিত পরিবহণের একটি বিশেষ রূপ; যার সাহায্যে একজন মোটর চালক একস্থান থেকে অন্যস্থানে দ্রুত গমন করে থাকেন। সাধারণতঃ এ পরিবহনটি দ্বি-চক্রযানের ন্যায় দুই চাকাবিশিষ্ট ও মোটর যুক্ত থাকে।[১] কখনো কখনো এটি তিন চাকাবিশিষ্ট[২] হয়ে থাকে, কিন্তু বাস কিংবা ট্রাক আকৃতির নয়। সচরাচর একজন ব্যক্তি কর্তৃক এ যানবাহন চালনা করা হয়। যিনি মোটর সাইকেল চালনা করেন, তিনি মোটর চালক নামে পরিচিত। মোটর চালকের পিছনে কিংবা সামনে যিনি আরোহণ করেন, তিনি মোটর আরোহী হিসেবে আখ্যায়িত হন। অনেক সময় মোটর সাইকেলের সাথে অন্য একটি অংশ সংযুক্ত করা হয় যাতে আরো তিনজন ভ্রমণ করতে পারেন। দূরত্ব, ব্যবহার, আর্থিক ক্রয়ক্ষমতা ইত্যাদির উপর নির্ভর করে মোটর সাইকেল নির্মাণ করা হয়।








Leave a reply