জেনে নিন সেই মারাত্মক বিষ ‘রাইসিন’ বাংলাদেশে কী নামে পরিচিত

|

মা’র্কিন প্রে’সিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রা’ম্পের কাছে সম্প্রতি একটি প্যাকেট পাঠানো হয়। সেই প্যাকে’টে ছিল রাইসিন নামক এক মা’রাত্মক বি’ষাক্ত পদার্থ। কিন্তু এই বি’ষাক্ত পদার্থ রাইসিন আসলে কী জিনিস? জানা গেছে, ক্যাস্টর অয়েল তৈরি হয় যে বীজ থেকে, সেই একই বীজ থেকেই তৈরি এই রাইসিন বি’ষ। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি’র মতে, রাইসিন এতটাই বি’ষাক্ত যে মাত্র কয়েক ফোটা লবণ দানার পরিমাণ একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির মৃ’ত্যুর ঘটাতে পারে।

রাইসিন কোনওভাবে খেয়ে ফেললে, নিশ্বাসের সঙ্গে অথবা ই’নজেকশনের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করলে মাথা ঘোরা ও বমি শুরু হয়। এরপর শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হতে থাকে। কতটুকু পরিমাণ রাইসিন শরীরে প্রবেশ করেছে তার ও’পর নির্ভর করে ৩৬ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মৃ’ত্যু ঘটে। রাইসিনের বি’ষক্রিয়া প্রতিরোধে কোনও প্রতিষেধক নেই। সিডিসি বলছে, রাইসিন দিয়ে তৈরি গুড়া ও স্প্রে অ’স্ত্র হিসেবেও ব্যবহার করা সম্ভব। যুক্তরাষ্ট্রে এর আগেও হোয়াইট হাউজকে উদ্দেশ্য করে রাইসিন মেশানো চিঠি পাঠানোর ঘটনা ঘটেছে।

সাবেক প্রে’সিডেন্ট বারাক ওবামা ও অন্যান্য কয়েকজন কর্মকর্তাকে রাইসিনের গুড়া মেশানো চিঠি পাঠানোর দায়ে ২০১৪ সালে মিসিসিপির এক ব্যক্তিকে ২৫ বছরের কা’রাদ’ণ্ড দেওয়া হয়। এর চার বছর পর ২০১৮ সালে মা’র্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সদর দফতর ও হোয়াইট হাউজে একই ধরনের চিঠি পাঠানোর জন্য একজন সাবেক সে’না সদস্যকেও অ’ভিযুক্ত করা হয়। রাইসিন বা ক্যাস্টর বাংলাদেশে কী নামে পরিচিত

রাইসিন হচ্ছে এক ধরনের বি’ষ, যা ক্যাস্টর বীজ থেকে উৎপাদিত। আর ক্যাস্টর বাংলাদেশে ভেন্না গাছ নামে পরিচিত।রূপচর্চাসহ নানা কাজে ক্যাস্টর অয়েল বা ভেন্নার বীজের তেল ব্যবহারের চল রয়েছে। কিন্তু এটি একটি বি’ষাক্ত গাছ। এর বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে রাইসিন। এক টেবিল চামচ ভেন্নার বীজ গুড়া করে খেলে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মৃ’ত্যু হতে পারে। এই বি’ষ পেটে গেলে বমি ও পাতলা পায়খানা শুরু হয়। তবে চিকিৎসার জন্য আপনি যথেষ্ট সময় পাবেন-কমপক্ষে এক সপ্তাহ। অনেকটা মটর দানার মত দেখতে বীজগুলো।








Leave a reply