ঘরেই তৈরি করুন ‘দই ফুচকা’

|

ফুচকা খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। রাস্তার ধারে ফুচকার দোকান দেখলেই জিভে জল চলে আসে অনেকের। আর দই ফুচকা হলে তো কথাই নেই। কিন্তু বাইরের খোলা খাবারের দিকে নজর না দিয়ে একটু অল্প কষ্টে ঘরে তৈরি করে ফেলুন না এই সুস্বাদু খাবারটি। ভাবছেন অনেক ঝামেলার? মোটেই নয়। বেশ সহজেই তৈরি করে নিতে পারবেন অসাধারণ স্বাদের ‘দই ফুচকা’।
উপকরণঃ

ফুচকা তৈরির জন্য
লাল আটা ২ কাপ (সাদা হলেও চলবে), সুজি আধা কাপ,গুঁড়ো করা কালো জিরা সামান্য,লবণ স্বাদমতো, পানি প্রয়োজনমতো গুঁড়ো মসলা তৈরির জন্য ধনে গুঁড়ো ২ টেবিল চাম জিরা শুকনো করে ভেজে গুঁড়ো করা ২ টেবিল-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়ো ১ টেবিল-চামচ সব উপকরন একসাথে মিশিয়ে মসলা তৈরি করে নিন।

টক তৈরির জন্য
তেঁতুলের গোলা ১ কাপ, চিনি আধা কাপ, ধনেপাতা ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ৫টি,শুকনো মরিচ ভাজা৬টি, বিট লবণ আধা চা-চামচ পানি ঝরানো দই ১ কাপলবণ আধা চা চামচপুর তৈরির জন্য সেদ্ধ আলু হাতে ভেঙে নেয়া ১ কাপ বুট/ছোলার ডাল সেদ্ধ ১ কাপ, পেঁয়াজ আধা কাপ কাঁচা মরিচ কুচি ঝাল বুঝে

পদ্ধতিঃ

ফুচকা তৈরি
ফুচকা তৈরির সব উপকরন একসাথে মেখে রুটি তৈরির ডোয়ের মতো বানিয়ে রুটি বেলে নিন। এরপর ছোট ছোট গোল করে কেটে ডুবো তেলে ভেজে ফুচকা তৈরি করে নিন। লক্ষ্য রাখবেন ফুচকা যেনো ফুলে উঠে নতুবা ভেতরে পুর দিতে পারবেন না।

  • যদি ঝামেলায় না যেতে চান তাহলে দোকান থেকে বানানো ফুচকা কিনে নিতে পারেন।

টক তৈরি
– পানি ঝরানো দই ও লবণ বাদে সব উপকরন একসাথে ব্লেন্ড করে নিন।
– এরপর একটি প্যানে মিশ্রণটি জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিন।
– তারপর পানি ঝরানো দই ও লবণে মিশ্রণটি দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে টক তৈরি করে নিন।

পুর তৈরি
– সেদ্ধ আলু হাতে চটকে নিয়ে ডাল সেদ্ধ একসাথে মিশিয়ে ফেলুন। এরপর পেঁয়াজ, মরিচ এবং বানিয়ে রাখা গুঁড়ো মসলা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে পুর তৈরি করে নিন।

দই ফুচকা
– ফুচকার মাঝে একটু গোল করে ভেঙে নিন। এরপর এতে পুর ভরে দিন পছন্দমতো।
– পুরের উপরে দিন বানানো টক। এরপর ধনে পাতা ও ঝুড়ি ভাঙা দিয়ে দিন উপরে।
– যদি চান তাহলে শুধু টক ও পুর দিয়েই খেতে পারেন দই ফুচকা। এবার পরিবেশন করুন নিজের ইচ্ছে মতো সাজিয়ে।








Leave a reply