‘এই গাছ দেখতে পেলেই বাড়িতে এনে এই কাজ করুন, টাকা পয়সার বৃষ্টি হবে,

|

বাস্তু শাস্ত্র অনুসারে একটি গাছ পালটে দিতে পারে আপনার জীবন। অর্থ ভাগ্য তুঙ্গে রাখতে গাছের বিশেষ কিছু উপায় রয়েছে। জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী একাধিক গাছের একাধিক গুন রয়েছে যা ব্যবহার করে আর্থিক ভাগ্য তুঙ্গে রাখা সম্ভব। তাহলে জেনে নেওয়া যাক কোন গাছ বাড়িতে রাখলে অর্থ কষ্ট দূর হয় এবং কোন গাছের ডাল ভেঙে আনলে টাকার অভাব থাকে না।

অ্যালোভেরা – অনেক বাড়িতে গেলে দেখা যায় সেই বাড়ির ছাদে কিংবা উঠানে রয়েছে অ্যালোভেরা গাছ। বাস্তু শাস্ত্রবিদরা বলছেন অ্যালোভেরা গাছ যদি বাড়িতে সঠিক দিকে রাখা যায় তাহলে অনেকাংশে উন্নতি হতে পারে বাড়ির মালিকদের। এই গাছ অর্থ ভাগ্য বদলে দিতে পারে এমনই দাবি জ্যোতিষ শাস্ত্রবিদদের। তবে এই গাছটি রাখতে হবে বাড়ির পূর্ব দিকে।

মানি প্লান্ট – বাড়িতে মানি প্লান্ট রাখলে তা বাতাস শুদ্ধ করে। শাস্ত্রবিদদের দাবি এই গাছ যেন রাখা হয় টিভি বা কম্পিউটারের কাছাকাছি। অর্থ ভাগ্য তুঙ্গে রাখতে এই মানি প্লান্ট গাছের জুরি মেলা ভার। পাশাপাশি জীবনে কোন বাঁধা আসলে তা মুহূর্তে দূর করে দেয় মানি প্লান্ট।

অর্কিড – বাড়িতে অর্কিড রাখা মানে বিষয় সম্পত্তির ক্রমাগত বৃদ্ধি। ধন সম্পত্তি বাড়িয়ে তুলতে বাড়ির দক্ষিন দিকে রাখুন এই অর্কিড গাছ। এছাড়াও অর্কিড মন ও শরীরকে শান্ত রাখে, ফলে জীবন হয়ে ওঠে সুখময়।

অপরাজিতা – শুধু রুপে নয় অপরাজিতা অলৌকিক গুনেও অনন্য। এই গাছের ডাল, পাতা, ফুল ও শিকরের মধ্যে রয়েছে নানা অলৌকিক গুনাগুন। বাস্তু শাস্ত্র মতে অপরাজিতা বাড়ি থেকে বাস্তু দোষ দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও দরিদ্রতা থেকে মুক্তি দিতে পারে এই গাছের একটি ডাল।

এর জন্য যেকোনো পূর্ণিমার দিনে এই গাছের একটি ডাল ভেঙে বাড়িতে নিয়ে আসুন। ডালটি ভাঙতে হবে পূর্ণিমা চলাকালিন চাঁদের দিকে তাকিয়ে। এর পর এই ডালটি আপনার আলমারি বা মানি ব্যাগে রেখে দিন। তাহলে মা লক্ষ্মীর কৃপায় আপনার কখনোও টাকার অভাব হবে না।








Leave a reply