সরিষার তেলে সুস্বাদু মাটন কষা রাঁধবেন যেভাবে

|

রমজান সংযমের মাস। এ সময় পরিমিত খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এ সময় সব খাবারের পাশাপাশি প্রোটিনজাতীয় খাবারও নিয়মিত খেতে হবে। তাই প্রোটিনের চাহিদা পূরণে সপ্তাহে একদিন গরু বা খাসির মাংস তো খেতেই পারেন!

খাসির মাংস সবাই কমবেশি পছন্দ করে থাকেন। একঘেয়েমি মাটন বিরিয়ানি বা মাটন ভুনা ছাড়া খাসির বিভিন্ন পদ নিশ্চয়ই খাওয়া হয় না! এবার তবে স্বাদ পাল্টাতে রান্না করুন মাটন কষা।

একবার খেলে মজাদার এ পদটির স্বাদ মুখে লেগে থাকবে। ঘরে থাকা সামান্য কিছু উপকরণ দিয়েই তৈরি করে নিতে পারেন মাটন কষা। রইলো রেসিপি-

উপকরণ

১. খাসির মাংস ৬৫০ গ্রাম ২. মাঝারি পেঁয়াজ কুচি ১টি ৩. আস্ত তেজপাতা ২টি ৪. জিরার গুঁড়ো আধা চা চামচ ৫. এলাচ ২টি ৬. লবঙ্গ ৩টি
৭. লবণ স্বাদমত ৮. রসুন ৫ কোয়া ৯. মাঝারি পেঁয়াজ ১০. লেবুর রস ২/৩ চা চামচ ১১. লবঙ্গ ৫টি ১২. আস্ত দারুচিনি ১টি ১৩. সরিষার তেল ৩ টেবিল চামচ ১৪. মাঝারি টমেটো ২টি ১৫. শুকনো মরিচের গুঁড়ো ১ চা চামচ ১৬. কাঁচা মরিচের ফালি ২-৩টি ১৭. গরম মশলার গুঁড়ো ১ চা চামচ
১৮. ধন পাতা কুচি ১ মুঠো ১৯. আদা বাটা ১ চা চামচ ২০ হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ

পদ্ধতি

খাসির মাংসের টুকরোগুলো ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার মাংসের সঙ্গে লবণ, হলুদ ও ১ চামচ লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে এক ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। প্রেসার কুকারে সরিষার তেল গরম করে তাতে মাংস দিয়ে মাহাই হিটে রান্না করুন। এর ফলে মাংস থেকে অতিরিক্ত পানি দ্রুত শুকিয়ে যাবে। এরপরে মাংস নামিয়ে একপাশে রেখে দিন।

একে একে মরিচ, লবঙ্গ, সবুজ এলাচ এবং দারুচিনি বেটে নিন। সেইসঙ্গে আদা-রসুনের পেস্ট তৈরি করুন। একটি পাত্রে সরিষার তেল গরম করে তেজপাতা এবং পেঁয়াজ ভেজে নিন। পেঁয়াজ নরম হয়ে এলে আদা-রসুনের পেস্ট, মরিচ গুঁড়ো এবং হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। আঁচ কমিয়ে কষিয়ে নিতে হবে।

কিছুক্ষণ কষানোর পর তেল আলাদা হয়ে উঠে এলে টমেটোর টুকরো, জিরার গুঁড়ো এবং লবণ দিয়ে ঢেকে রান্না করতে হবে। পেসার কুকারের ঢাকনা একেবারে লাগাবেন না। শুধু উপর দিয়ে দিয়ে রাখলেই হবে। এরপর একে একে গুঁড়ো মশলাগুলো মিশিয়ে ১০ মিনিটের জন্য আবারও ঢেকে রান্না করুন। এ সময় কাঁচা মরিচের ফালিগুলো দিয়ে দিতে হবে।

এবার ১ কাপ পানি মিশিয়ে মাংস ভালো করে নেড়ে ঢেকে রান্না করুন হাই হিটে। এ সময় প্রেসার কুকারের মুখ ঢেকে দিতে হবে। ২ বার প্রেসার কুকারে আওয়াজ দিলেই চুলা বন্ধ করুন। ৫ মিনিট এভাবেই রেখে দিন। তারপর প্রেসার কুকারের মুখ খুলে গরম মশলার গুঁড়ো এবং ধনেপাতা ছড়িয়ে দিন। গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার মাটন কষা।








Leave a reply