শীতে শুষ্ক ত্বক থেকে মুক্তি পেতে এই পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করুন

|

আমাদের প্রতি মরসুমে আমাদের ত্বকের যত্ন নেওয়া উচিত, তবে শীতে ত্বকের বিশেষ যত্ন নিতে হবে। শীতকালে, ত্বকের শুষ্কতা বৃদ্ধি, ত্বকের ফেটে যাওয়া, ছত্রাকের সংক্রমণ সমস্যা ইত্যাদি দেখা দেয় এই সমস্যার প্রধান কারণ বাতাসে আর্দ্রতার অভাব। শীতে ত্বকের যত্নের জন্য আপনি এই পদ্ধতিগুলি অবলম্বন করতে পারেন। এখানে কিছু উপায় আছে দেখুন…..

১। গোসলে হালকা গরম পানির ব্যবহারঃ
শীতে শীত থেকে মুক্তি পেতে বেশিরভাগ মানুষ গরম জলে স্নান করেন। আপনি যদি নিজের ত্বককে শুকিয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে চান তবে, স্নান বা মুখ ধোওয়ার জন্য আপনার গরম পানির পরিবর্তে হালকা গরম জল ব্যবহার করা উচিত। উষ্ণ জল তাৎক্ষণিকভাবে ত্বককে শুকিয়ে যায়। গরম পানি দিয়ে গোসলের পরপরই যদি আপনি ময়েশ্চারাইজারটি মুখে না লাগিয়ে থাকেন।
২। প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুনঃ
শীতকালে বায়ু শুষ্ক থাকে এবং এর কারণে শরীরে উপস্থিত জল সহজেই বাষ্প হয়ে যায়। এক্ষেত্রে ত্বকে আর্দ্রতার মাত্রা বজায় রাখতে আরও বেশি করে জল পান করা উচিত। এটি ছাড়াও আপনার বাড়ির একটি পাত্রে জল ভরে রাখুন। এটি বায়ুমণ্ডলে আর্দ্রতা ধরে রাখবে। এটি আপনার ত্বকের জন্য ভাল হবে।
৩। ত্বকের যত্নের পণ্যগুলি বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতাঃ
গ্রীষ্মের ত্বকের যত্ন পণ্য এবং শীতের ত্বকের যত্নের পণ্যগুলির মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। তাই ঋতু অনুযায়ী আপনার ত্বকের যত্নের পণ্যগুলি পরিবর্তন করুন। এ ছাড়া গ্লিসারিন শীতের মৌসুমে ত্বকে উপস্থিত আর্দ্রতা বজায় রাখতেও বেশ সহায়ক বলে প্রমাণিত হয়।
৪। আপনার ত্বকের যত্ন নিনঃ
শীতকালে বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় ত্বক সম্পর্কে খুব সতর্ক হওয়া উচিত। প্রচণ্ড ঠান্ডা লাগলে সর্বদা গ্লোভস এবং টুপি পরে যাওয়া উচিত এবং বাইরে গিয়ে সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করা উচিত। শীতকালে, সূর্যের আলো প্রচুর স্বস্তি এনে দেয় তবে, ইউভি রশ্মিগুলি আমাদের ত্বকের ব্যাপক ক্ষতি করতে পারে। সুতরাং সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন যা আপনার ত্বককে রক্ষা করতে পারে।
৫। ত্বক কম ঘষাঃ
মুখে স্ক্রাব করা আমাদের মৃত কোষ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে। একই সাথে শীতে খুব যত্ন সহকারে মুখে স্ক্রাব করা উচিত। শীতের শীত এবং শুষ্ক আবহাওয়া ত্বকে ইতিমধ্যে আর্দ্রতার পরিমাণ হ্রাস করে। যদি সপ্তাহে একবার স্ক্রাব করা হয় তবে তা ঠিক আছে।








Leave a reply