ল্যাপটপে পিঁপড়ার উপদ্রব হলে সমাধান কি?

|

ল্যাপটপ অন করে যেদিকে ফ্যান আছে সেখানে perfume spray করুন। ৩-৪ ঘন্টা wait করুন। পারফিউম আপনার ল্যাপটপ এর ক্ষতি করতে পারবে না কারণ এটা volatile বা উদ্বায়ী পদার্থ। পিপড়া এর উগ্র গন্ধ সহ্য করতে না পেরে বের হয়ে আসবে। অবশ্যই ল্যাপটপ বন্ধ করে এই কাজটি করবেন।

কাপড়ে ডেটলের পানি লাগিয়ে হাল্কা ভাবে কীবোর্ডের পাশটি মুছে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন ভিজে না যায়। কয়েকদিন করুন কাজটি। ডেটলের করা গন্ধে আশা করি সব পিঁপড়ে বেরিয়ে আসবে।
ব্যাটারি খুলে ল্যাপটপ নিয়ে রোদে কিছুক্ষন বসতে পারেন। বেশি কড়া রোদের দরকার নেই।

এক লোকের ল্যাপটপের মধ্যে পিঁপড়া ঢুকে গেছে। তিনি এই সমস্যার সমাধান চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। কমেন্টে অনেক অনেক সমাধান পদ্ধতি সম্পর্কে তাকে অবহিত করা হয়। চলুন দেখা যাক, তাকে দেওয়া সমাধানগুলো কেমন ছিল?

ল্যাপ্টপ এর ব্যাগ এ আরসোল স্প্রে করে ব্যাগ এ ল্যাপ্টপ রেখে দিন। এতা বেশি কার্যকর ল্যাপ্টপ ব্লোয়ার দিয়ের ক্লীন করার চেয়ে। চেষ্টা করে দেখেন।

= ল্যাপটপটাতে জোরে একটা চুমু দেন। কিছু ফেরত পেলেও পেতে পারেন।

= এখানে কেন বলছেন? সংসদে যদি বিল পাস হয় তাহলেই শুধু বের করতে পারবেন। না হলে কারও বাপেরও সাধ্য নেই পিঁপড়াগুলোকে বের করে!

= ল্যাপটপের কাছে গিয়ে জোরে জোরে বলুন, হেলমেটওয়ালা কিছু লোক লাঠি নিয়ে আসছে। এরপর ল্যাপটপ কেন, আপনার বাসার এরিয়াতেও আর পিঁপড়া আসবে না।

= ভাই, ল্যাপটপটাকে পানির ভেতর চুবিয়ে ধরেন। পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে।

= ল্যাপটপটা অফ করে তার পাশে একটু চিনি রেখে দিন। পিঁপড়াগুলো চিনি খাওয়ার লোভে বের হলে ল্যাপটপ ও চিনি দুটোই সরিয়ে ফেলুন। পিঁপড়াগুলো বলদ হয়ে যাবে।

= এম রহমানের গান ছেড়ে দেন। যেসব পিঁপড়ার ভাগ্য ভালো সেগুলো বাঁচতে পারে। বাকিগুলো একদম স্পট ডেড।

= পিঁপড়ার মে-বি বাচ্চা হইছে এতক্ষণে, মিষ্টি খাওয়ান। শুভ সংবাদ এত দেরিতে কেউ দেয়?

= তারিখ কোম্পানির গুল ঢুকিয়ে দেন। দেখবেন মাতাল হয়ে নাচতে নাচতে বের হয়ে যাবে।

=ল্যাপটপটাকে ভালোমানের কোনো ডাক্তার দেখাতে হবে। ট্রিটমেন্টে যেন কোনো সমস্যা না হয়।

=ল্যাপটপ উপুড় করে ঝাঁকি দেন। তাতে না পড়লে ল্যাপটপের দুটো ফুটা বাদে সব ফুটা বন্ধ করে একটা দিয়ে পানি ঢালেন। অন্যটা দিয়ে ঠিকই পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে।

– এই ঘটনার পেছনে নিশ্চয়ই বিরোধী দলের হাত আছে। দয়া করে কেউ গুজব বলে উড়িয়ে দেবেন না।

– ল্যাপটপ টানা পাঁচ ঘণ্টা চালু রাখেন। অতিরিক্ত গরম সহ্য করতে না পেরে পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে। রোদেও রাখতে পারেন।

-পুলিশের কাছে নিয়ে যান। পিঁপড়াগুলোকে ক্রেন দিয়ে টেনে বের করে রিমান্ডে নিয়ে যাবে। আজ পালাবি কোথায়?

– আমার মনে হয় এটা গুজব, কেউ কান দেবেন না। আর যদি ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তবে আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।

-পানিতে চিনি গুলে ল্যাপটপের ওপর ছেড়ে দিন। চিনির ঘ্রাণ পেয়ে সব পিঁপড়া বের হয়ে আসবে।

= আপনি এখনও বাসায় বসে আছেন! দ্রুত আপনার নিকটস্থ টিভি চ্যানেলগুলোকে অবহিত করুন। তারা নিউজ রিপোর্ট করলে সরকার আপনার সাহায্যে এগিয়ে আসবে।

= পিঁপড়াগুলোর নামে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দেওয়া উচিত। একটা উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের নাগরিকের ল্যাপটপে হুটহাট ঢুকে যাবে? কত্ত বড় সাহস!

= ল্যাপটপের চারপাশে কিছু মেয়ে পিঁপড়া এনে রাখেন। এতে ছেলেগুলো বের হলেও হতে পারে।

= ল্যাপটপের পেছনের ফুটো দিয়ে পিঁপড়া মারার বিষ ঢোকান। মরে সব ভূত হয়ে যাবে।

= প্লিজ, পিঁপড়াগুলো মারবেন না। ওদের ছেলে-মেয়ে, ঘর-সংসার আছে। ওরাও তো কারও না কারও বাবা-মা, ভাই-বোন। তাই এই অবুঝ প্রাণীগুলোর অকালে প্রাণ নেবেন না।

– এই ঘটনার পেছনে নিশ্চয়ই বিরোধী দলের হাত আছে। দয়া করে কেউ গুজব বলে উড়িয়ে দেবেন না।

– ল্যাপটপ টানা পাঁচ ঘণ্টা চালু রাখেন। অতিরিক্ত গরম সহ্য করতে না পেরে পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে। রোদেও রাখতে পারেন।

– পুলিশের কাছে নিয়ে যান। পিঁপড়াগুলোকে ক্রেন দিয়ে টেনে বের করে রিমান্ডে নিয়ে যাবে। আজ পালাবি কোথায়?

– আমার মনে হয় এটা গুজব, কেউ কান দেবেন না। আর যদি ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তবে আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।

– পানিতে চিনি গুলে ল্যাপটপের ওপর ছেড়ে দিন। চিনির ঘ্রাণ পেয়ে সব পিঁপড়া বের হয়ে আসবে।

= আপনি এখনও বাসায় বসে আছেন! দ্রুত আপনার নিকটস্থ টিভি চ্যানেলগুলোকে অবহিত করুন। তারা নিউজ রিপোর্ট করলে সরকার আপনার সাহায্যে এগিয়ে আসবে।

= পিঁপড়াগুলোর নামে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা দেওয়া উচিত। একটা উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের নাগরিকের ল্যাপটপে হুটহাট ঢুকে যাবে? কত্ত বড় সাহস!

= ল্যাপটপের চারপাশে কিছু মেয়ে পিঁপড়া এনে রাখেন। এতে ছেলেগুলো বের হলেও হতে পারে।

= ল্যাপটপের পেছনের ফুটো দিয়ে পিঁপড়া মারার বিষ ঢোকান। মরে সব ভূত হয়ে যাবে।

= প্লিজ, পিঁপড়াগুলো মারবেন না। ওদের ছেলে-মেয়ে, ঘর-সংসার আছে। ওরাও তো কারও না কারও বাবা-মা, ভাই-বোন। তাই এই অবুঝ প্রাণীগুলোর অকালে প্রাণ নেবেন না।

= ল্যাপটপটাতে জোরে একটা চুমু দেন। কিছু ফেরত পেলেও পেতে পারেন।

= এখানে কেন বলছেন? সংসদে যদি বিল পাস হয় তাহলেই শুধু বের করতে পারবেন। না হলে কারও বাপেরও সাধ্য নেই পিঁপড়াগুলোকে বের করে!

= ল্যাপটপের কাছে গিয়ে জোরে জোরে বলুন, হেলমেটওয়ালা কিছু লোক লাঠি নিয়ে আসছে। এরপর ল্যাপটপ কেন, আপনার বাসার এরিয়াতেও আর পিঁপড়া আসবে না।

= ভাই, ল্যাপটপটাকে পানির ভেতর চুবিয়ে ধরেন। পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে।

= ল্যাপটপটা অফ করে তার পাশে একটু চিনি রেখে দিন। পিঁপড়াগুলো চিনি খাওয়ার লোভে বের হলে ল্যাপটপ ও চিনি দুটোই সরিয়ে ফেলুন। পিঁপড়াগুলো বলদ হয়ে যাবে।

= এম রহমানের গান ছেড়ে দেন। যেসব পিঁপড়ার ভাগ্য ভালো সেগুলো বাঁচতে পারে। বাকিগুলো একদম স্পট ডেড।

= পিঁপড়ার মে-বি বাচ্চা হইছে এতক্ষণে, মিষ্টি খাওয়ান। শুভ সংবাদ এত দেরিতে কেউ দেয়?

= তারিখ কোম্পানির গুল ঢুকিয়ে দেন। দেখবেন মাতাল হয়ে নাচতে নাচতে বের হয়ে যাবে।

=ল্যাপটপটাকে ভালোমানের কোনো ডাক্তার দেখাতে হবে। ট্রিটমেন্টে যেন কোনো সমস্যা না হয়।

=ল্যাপটপ উপুড় করে ঝাঁকি দেন। তাতে না পড়লে ল্যাপটপের দুটো ফুটা বাদে সব ফুটা বন্ধ করে একটা দিয়ে পানি ঢালেন। অন্যটা দিয়ে ঠিকই পিঁপড়াগুলো বের হয়ে আসবে।








Leave a reply