মুখমণ্ডলের মেদ কমানোর কিছু চমৎকার উপায়

|

শরীরে মেদ জমে যাওয়াটা খুবই বিরক্তিকর। দেখা যায় নিজের অযত্নের কারণেই শরীরের বিভিন্ন অংশে মেদ জমতে থাকে। এর মধ্যে মুখে মেদ বেড়ে যাওয়াটা খুব বেশি অস্বস্তিকর।
এক্ষেত্রে অন্য অংশের মেদ কমাতে যেসব কৌশল কাজে আসে, তার সবগুলো মুখমণ্ডলের মেদ কমাতে সাহায্য করে না। বরং মুখের মেদ কমানোর জন্য রয়েছে কিছু আলাদা কৌশল।

ফিটনেস বিশেষজ্ঞ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন এমন কিছু পদক্ষেপের কথা। যা মুখের মেদ বা ডাবল চিন থেকে খুব সহজেই মুক্তি দেবে। আসুন জেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো-

মুখের ব্যায়াম

মুখমণ্ডলের জন্য কিছু বিশেষ ব্যায়াম আছে। মুখের মেদ ঝরাতে ও পেশীর জোর বাড়াতে এসব ব্যায়ামে অভ্যস্ত হোন। চুইংগাম চিবনোর মতো ভঙ্গি, জিভ বের করে ২০ সেকেন্ড রেখে দেয়া- এমন অনেক সহজ ব্যায়াম আছে। এসব ব্যায়ামেই মুখের মেদ ঝরবে অনেকটাই।

অ্যালকোহলের মাত্রা

মুখের মেদ কমাতে অ্যালকোহলের মাত্রায় রাশ টানুন। মদ যেমন ভুঁড়ি বাড়ায়, তেমনই মুখমণ্ডলের মেদ বাড়াতেও অনুঘটক হিসেবে কাজ করে।

খাবার

মুখের মেদ ঝড়াতে চিনি, সোডা, ময়দার পাউরুটি, ভাত, ময়দাজাত নানা খাবার- এ সবে রাশ টানুন। কোক, প্যাকেটজাত ঠাণ্ডা ফলের রস, চকলেট আইসক্রিমও মেদ বাড়ায়। তাই এড়িয়ে চলুন এসব খাবার।

সোডিয়ামের মাত্রা

শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বেড়ে গেলে শরীরে অতিরিক্ত পানি জমে ও মুখমণ্ডলও ফুলে যায়। বেশির ভাগ প্যাকেটজাত খাবারেই অতিরিক্ত লবণ থাকে। তাই শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বজায় রাখুন। খাওয়ার পাতে কাঁচা লবণ একেবারেই চলবে না।

ডায়েট পরিবর্তন

প্রথমেই সচেতন হতে হবে খাবারের বিষয়ে। রিচফুডের পরিবর্তে কম ক্যালোরি সালাদ জাতীয় খাবার বেশি খেতে হবে। সঙ্গে টাটকা ফল আর বেশি পানি পান করুন।

বেলুন

বেলুন ফোলানো খুব সহজভাবে মুখের চর্বি হ্রাস করার একটি দুর্দান্ত উপায়। একটি বেলুন নিন এবং এটিকে মুখেই বাতাস ভরে পূরণ করুন। এই কৌশল সত্যিই কাজ করে! এতে মুখের পেশীর ব্যায়াম হয়। প্রতিদিন ১০ মিনিট বেলুন ফোলান আর ৭ দিন পর লক্ষ্য করুন, মুখের আকারে পরিবর্তন আসতে শুরু করেছে।

গরম তোয়ালে

এটি অদ্ভুত বলে মনে হতে পারে, তবে গালের চর্বি কমাতে সাহায্য করে গরম তোয়ালে থেরাপি। গরম পানিতে একটি তোয়ালে ডুবিয়ে অতিরিক্ত পানি সরিয়ে নিন। মুখের ওপর রেখে দিন ১০ মিনিট, অনুভব করুন মুখ ঘামতে শুরু করেছে। এভাবেই ধীরে ধীরে মুখে জমানো চর্বিগুলো গলে গিয়ে আপনাকে দেবে মেদহীন-কোমল মুখ।

চুইংগাম

চুইংগাম গাল থেকে ক্যালোরি ঝরিয়ে দেয়, এটি মুখের জন্য চমৎকার ব্যায়াম। চিনি ছাড়া চুইংগাম নিন, দিনে যেকোনো সময় মাত্র দু’বার ২০ মিনিটের জন্য চিবিয়েই পাবেন কাঙ্ক্ষিত পাতলা মুখ।

পানি পান

যদি আপনি ডাবল চিনের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চান তবে বেশি বেশি পানি পান করুন। এক গবেষণায় দেখা গেছে, শরীরে পানির অভাব হলে মুখ ভারী হয়ে যায়। তাই ডাবল চিবুক কমাতে দৈনিক অন্তত ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করুন। আপনি বেশি পরিমাণে ফল ও সবজি খেয়েও আপনার শরীরের পানির ভাগ বাড়াতে পারেন। যদি দ্রুত ফলাফল পেতে চান তবে কফি, চা, এবং মদ জাতীয় পানীয় পান থেকে বিরত থাকুন।

সবুজ চা

আমরা জানি শরীরে অতিরিক্ত মেদের জন্য ডাবল চিন দেখা যায়। সবুজ চায়ের বিপাকীয় হার বৃদ্ধি করার ক্ষমতা আছে। ফলে এই চা সেবনে শরীর থেকে অতিরিক্ত চর্বি বার্ন হয়। দিনে কয়েক কাপ সবুজ চা পান আপনার বিপাকীয় হার বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে এবং ক্যালরি বার্ন হবে।

সূত্র: বোল্ডস্কাই








Leave a reply