ভালো লাগা ও ভালোবাসার মধ্যে পার্থক্য কি?

|

প্রেম সবার জীবনেই আসে। কারো জীবনে খুব তাড়াতাড়ি আসে, আবার কারো জীবনে আসে একটু দেরিতে। অনেকেই আবার বুঝতেও পারে না যে সে প্রেমে পড়েছে! প্রেমের ব্যাপারে কারো কারো ক্ষেত্রে দেখা যায়, কাউকে প্রথম দেখাতেই ভালো লেগে যায়। অন্য একদলের আবার এই ভালো লাগা তৈরি হতে দীর্ঘদিন সময় লাগে।

তবে ভালো লাগা ও ভালোবাসার মধ্যে পার্থক্য বুঝে উঠতে পারেন না অনেকেই। ফলে অনেকেই জড়িয়ে পড়েন ভুল সম্পর্কে। কিছু লক্ষণ দেখে বুঝে নেয়া সম্ভব যে কোনটি ভালোলাগা আর কোনটি ভালোবাসা। আর সেটি খেয়াল করেই প্রেমে পড়ার বিষয়টি বুঝে নেয়া সম্ভব। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক প্রেমে পড়ার আট লক্ষণ-

এখনকার সময়ে মুঠোফোন মানুষের জীবনের বিরাট অংশ দখল করে আছে। তবে একটি ফোনকল কি আপনার জীবনের সব খারাপ লাগা মুছিয়ে দিতে পারে? ওই বিশেষ মানুষের কল এলে কি মুহূর্তেই সব অবসাদ, ক্লান্তি, একঘেয়েমি কেটে যাচ্ছে? তাহলে আপনি তার প্রেমে পড়েছেন।

মুঠোফোনে আসা একটি মেসেজ কি আপনার সব দুঃখ, চিন্তা নিমেষেই ভুলিয়ে দিতে পারে? তাহলে আপনার প্রেমে পড়া নিয়ে আর কোনো সংশয় থাকার কথা নয়।

বিরামহীন কর্মজীবনে যদি কোনো বিশেষ মানুষকে দেখার জন্য অফিসে না যেতে ইচ্ছে করে, তাহলে বুঝতে হবে আপনি প্রেমে পড়েছেন।

বসের বকুনি খেয়েও যদি কারো চোখে চোখ রাখলেই মন জুড়িয়ে যায়, তাহলে বুঝে নিন যে আপনি প্রেমে পড়েছেন।

বিশেষ মানুষ যা করে, সেটিই কি আপনার কাছে সঠিক মনে হয়? তাহলে নিঃসন্দেহে বুঝতে হবে, আপনি প্রেমে পড়েছেন।

যদি কারো সঙ্গে দেখা হওয়ার আনন্দে আপনি আপনার সবচেয়ে প্রিয় পোশাকটি পরে ফেলেন, তাহলে আর সেটা প্রেম না হয়ে যায় কোথায়!

অফিস থেকে ফেরার পথে রাস্তায় কিংবা বাসে প্রচণ্ড ভিড় থাকাই স্বাভাবিক। তবে এসবের মধ্যেও আপনার মন যদি থাকে ফুরফুরে, মনে টুংটাং পিয়ানোর শব্দ বাজে, তাহলে এবার বলেই ফেলুন সঙ্গীকে।

মনে মনে সব সময়ই গুনগুন করে গাইছেন প্রেমের কোনো গান? তাহলে বুঝে নিন, প্রেমে পড়ার হাত থেকে আপনিও নিস্তার পাননি।

এই লক্ষণগুলো যদি আপনার মধ্যে না থাকে তবে বুঝে নিবেন যে, এটি ওই মানুষটির প্রতি শুধুমাত্র আপনার ভালো লাগা, ভালোবাসা নয়। আর যদি লক্ষণগুলো আপনার সঙ্গে মিলে যায়, তবে আজই মনের কথা জানিয়ে দিন বিশেষ মানুষকে। বলা তো যায় না, তিনিও হয়তো আপনার পদক্ষেপের আশায় আছেন।








Leave a reply