দুপুরে ঘুম পায় কেন?

|

দুপুরে খাওয়ার পর একটু গড়িয়ে নেওয়ার অভ্যাস অনেকেরই আছে। কেউ দিয়ে দেন টানা দু-এক ঘণ্টার ঘুম। খাওয়ার পরই এই ঘুমটা চোখের দখল নেয়। তখন অনেক চেষ্টা করেও চোখ মেলে রাখা দায় হয়ে যায়। অনেকেই অফিস-আদালতে এই ঘুম সমস্যায় পড়েন। যদিও সবার এই সমস্যাটা নেই, তবে দুপুরে ঘুমকাতুরে মানুষের সংখ্যা নেহাত কমও নয়। কিন্তু কেন দুপুরে ঘুম পায়? তাহলে কি রাতে ঘুম কম হয়েছে? জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট ফেমিনা দিয়েছে এর উত্তর।

পুষ্টিবিদ ও ফিটনেস বিশেষজ্ঞ লিউক কোটিনহো বলেন, প্রয়োজনের তুলনায় বেশি খেলে শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা ওঠানামা করে। যে কোনো খাবার খাওয়ার পরেই রক্তের সুগার নিয়ন্ত্রণের জন্য আপনার প্যানক্রিয়াস ইনসুলিন তৈরি করতে থাকে। বেশি খেলে প্যানক্রিয়াস বেশি ইনসুলিন উৎপন্ন করে। ইনসুলিন বেশি উৎপন্ন হলে দুটো বিষয় ঘটে। এই হরমোন আপনার মস্তিষ্কে গিয়ে বিপাক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সেরোটোনিন ও মেলাটোনিনে পরিণত হয়। এই মেলাটোনিন হলো ঘুমের হরমোন।

পাশাপাশি উচ্চ কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার খেলে একে হজম করতে অনেক শক্তি খরচ হয়। লিউক বলেন, খুব ভারী খাবার খেলে একে হজম করতে শরীরের ৬০ থেকে ৭৫ ভাগ শক্তি ব্যবহৃত হয়। এই শক্তি ক্ষয়ের জন্য আমাদের ঘুম পায়। কেবল উচ্চ কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবারের বেলায় এটি ঘটে না, প্রোটিন জাতীয় খাবারের বেলাতেও এটি ঘটে।
কীভাবে এই ঘুম তাড়াবেন? সমস্যার কারণ যেহেতু জানা গেছে, সমাধানও নিশ্চয়ই বুঝে গেছেন? বেশি প্রোটিন ও বেশি চর্বিজাতীয় খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। এড়িয়ে চলুন উচ্চ কার্বোহাইড্রেট। তাই দুপুরে খুব বেশি খেতে যাবেন না। দুপুরে হালকা খাবার খাওয়া এই ঘুম ঘুম ভাব কমাতে সাহায্য করবে। আর অবশ্যই দীর্ঘ সময় না খেয়ে থাকবেন না। না খেয়ে থাকলে শরীর এমনিতে দুর্বল হয়ে পড়ে। এরপর খাবার খেলে তা হজম করতে শরীরের অবশিষ্ট শক্তিটুকুও খরচ হয়ে যায়। ফলে চোখে ঘুম জেকে বসে।








Leave a reply