ত্বকে ভাঁজ পড়ার কারণ ও প্রতিকার

|

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা বিভিন্ন রোগের সম্মুখীন হই, যেগুলো শুধুমাত্র নিজেরাই ভোগ করি। বয়সের সাথে সাথে ত্বকে ভাঁজ পড়াও এমন একটি দৃষ্টিকটু ব্যাপার যা কিনা আমাদের নিজেদের কাছেই অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়, আবার অন্যদের কাছেও বয়স লুকিয়ে রাখা সম্ভব হয়ে উঠে না।

চামড়াকে টান টান করে ধরে রাখতে সহায়তা করে কোলাজেন নামক যে প্রোটিন, আমাদের বয়স বাড়তে থাকলে তা ধীরে ধীরে ক্ষয় হতে থাকে; এর ফলে ত্বক পাতলা ও ভঙ্গুর হয়ে থাকে। আর এসব পরিবর্তন পর্যায়ক্রমে অনেক বছর ধরেই ঘটতে থাকে। তবে সূর্যের আলোর প্রতিক্রিয়া, ধূমপানের ধোঁয়া, দূষণ এ ধরণের আরো অনেক কিছু ব্যাপারটা দ্রুততর করে। এসবের প্রতিক্রিয়ায় ত্বকের কোন কোন অংশ পুরু হয়ে যেতে পারে বা ঘটতে পারে খারাপ ধরণের কোন রোগ। রোগের মধ্যে হতে পারে ত্বকের ক্যান্সার বা অন্য কোন ত্বকীয় সমস্যা। তেমন হলে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা ও কাঠিন্য নষ্ট হয়ে যায়।

ত্বক মসৃণ ও বলিরেখা মুক্ত রাখার জন্য বিদেশে বিভিন্ন ধরণের ক্রিম, লোশন এবং ওষুধ ব্যবহার করা হয়। আমাদের দেশেও এসবের কমতি নেই। তবে এগুলোর অধিকাংশকে রাসায়নিক বিষ বললে ভুল হবে না। তবে ত্বকে ভাঁজ পড়া বিলম্বিত করার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। শরীরকে রোগ মুক্ত রাখতে হবে। যাদের অকালেই ত্বকে ভাঁজ পড়ে গেছে তাঁরা আর সময়ক্ষেপণ না করে চর্ম রোগের ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে পারেন।








Leave a reply