চোখ জ্বালাপোড়ায় করণীয়

|

নানা কারণে চোখে জ্বালাপোড়া হতে পারে। অতিরিক্ত গরম, ঠাণ্ডা, ধুলাবালি চোখে ঢোকা, শরীরে পানির ঘাটতি ইত্যাদি কারণে আমাদের চোখ জ্বালাপোড়া করতে পারে। এ সময় অনেকেই চোখ চুলকান। এতে জ্বালাপোড়া আরও বেড়ে যায়। চলুন জেনে নিই এমন পরিস্থিতিতে কী করা উচিত-

*যেসকল পরিবেশে গেলে চোখ জ্বালাপোড়া করে সেসব এড়িয়ে চলুন।
*চোখকে ধুলাবালি ও রোদ থেকে রক্ষা করার জন্য সানগ্লাস ব্যবহার করুন।
*নিয়মিত সুষম খাবার গ্রহণ করুন।
*কখনো চোখে ঘষাঘষি করবেন না।
*দুই হাত সব সময় পরিষ্কার রাখুন।

বরফ ঠাণ্ডা পানিতে চোখ মুখ ধুয়ে ফেলুন। কয়েক টুকরা বরফ একটি নরম কাপড়ে পেঁচিয়ে নিন। এবার এটি চোখের উপর দিয়ে রাখুন। আরাম পাবেন।
*গোল করে শসা কাটুন দুই টুকরা। বরফ ঠাণ্ডা পানিতে ডুবিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। এরপর ঠাণ্ডা শসা চোখের উপর দিয়ে চোখ বন্ধ করে রাখুন কিছুক্ষণ। দেখবেন, চোখ জ্বালাপোড়া অনেকটা কমে এসেছে।
*টি ব্যাগে উপস্থিত বায়োফ্লেভোনয়েডস বিভিন্ন ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশন ও জ্বালাপোড়া কমাতে সহায়তা করে। দুই চোখে দুইটি ব্যবহৃত টি ব্যাগ দিয়ে রাখুন। চোখ জ্বালাপোড়া হ্রাস পাবে।
*প্রচুর পানি পান করুন।
*একটি বাটিতে কিছু অ্যালোভেরার রস নিন। ফ্রিজে রাখুন বেশ কিছুক্ষণ। ঠাণ্ডা হয়ে এলে বের করে একটু ঠাণ্ডা পানি মেশান। দুই টুকরা নরম পাতলা কাপড় ওই রসে ভিজিয়ে চোখে লাগিয়ে রাখুন। চোখ জ্বালাপোড়া কমে আসবে।
*অবাক করা হলেও সত্যি, পাউরুটি ফ্রিজে ঠাণ্ডা করে চোখে লাগিয়ে রাখলে চোখ জ্বালাপোড়া, চুলকানি ইত্যাদি অনেকটা কমে আসে।
নিয়মিত চোখের ডাক্তার দেখান। চোখে কোন ধরণের অস্বস্তিবোধ হলে ডাক্তারকে তৎক্ষণাৎ জানান।








Leave a reply