গলা ব্যথায় যেসব খাবার এড়ানো উচিত

|

ঋতু পরিবর্তনের সময় কম বেশি সবাই ঠাণ্ডা, কাশি ও গলা ব্যথার সমস্যায় ভুগে থাকেন। এই সমস্যা দূর করতে ঘরোয়া টোটকা অনেকেই ব্যবহার করেন। তবে কিছু খাবার এই সমস্যা আরও বাড়াতে পারে।

স্বাস্থ্য-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে গলা ব্যথার সমস্যা বাড়ায় এমন কয়েকটি খাবারের নাম সম্পর্কে জানানো হল।

দই: দই প্রেমী হয়ে থাকলে, গলা ব্যথার সময় তা না খাওয়াই ভালো। দই বুকে জমে থাকা শ্লেষ্মা আরও ঘন করে ফেলে এবং কাশি বাড়ায়।

পনির: পনির উচ ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ও খনিজ সমৃদ্ধ। এটা গলা ব্যথা থাকা অবস্থায় খাওয়া কোনোভাবেই ঠিক নয়, ব্যথা আরও বাড়তে পারে। এটা ‘কফ’ আরও খারাপ পর্যায়ে নিয়ে যেয়ে প্রদাহ বাড়ায়।

টক ফল: গলা ব্যথা থাকা অবস্থায় কমলা ও লেবুজাতীয় ফল সম্পূর্ণভাবে বাদ দেওয়া উচিত। কারণ এর টকভাব ও চটকদার স্বাদ গলায় অস্বস্তি তৈরির মাধ্যমে অ্যালার্জি ও চুলকানির সৃষ্টি করে।

ভাজা খাবার: ভাজা খাবার হজম করা কঠিন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও শরীরের ভাইরাসের বিরুদ্ধে কাজ করার কমায়। এছাড়াও উচ্চ তাপে তেলে রান্না করা খাবার গলায় অস্বস্তি ও চুলকানির সৃষ্টি করে।

মোড়কজাত ফলের রস: মোকড়কজাত ফলের রসে থাকা কৃত্রিম রং ও চিনি সংক্রমণ সৃষ্টি করতে ও পাকস্থলিতে অ্যাসিডের পরিমাণ বাড়াতে পারে।

তেঁতুল: কাঁচা বা গুঁড়া করা তেঁতুল গলায় অ্যালার্জির সৃষ্টি করতে পারে। তাই গলা ব্যথা হলে তেঁতুল খাওয়া থেকে বিরত থাকাই ভালো। অন্যথায় গলা ব্যথা আরও বাড়তে পারে।

আমচুর গুঁড়া: টক ও লোভনীয় স্বাদের আমচুড় খেতে মজাদার হলেও এটা গলা ব্যথা বাড়ায়।








Leave a reply