এই চারটি ঘরোয়া পদ্ধতিতেই আপনার পা হয়ে উঠবে সুন্দর ও দাগহীন!

|

রুপচর্চার সময় সাধারণত আমরা মুখ ও হাতের ত্বকের যত্ন নিয়ে থাকি, পায়ের দিকে অতটাও কেয়ার করি না। খুব কম সংখ্যক মানুষই আছেন, যারা পায়ের যত্ন নেন। বিশেষত, যাদের রোজ বাইরে বেরোতে হয় তাদের পায়ের যত্ন নেওয়া আরও জরুরি। পা যদি সুন্দর-পরিষ্কার না থাকে তাহলে বিভিন্ন স্টাইলিশ ড্রেসও পরা যায় না। তাই, পায়ের যত্ন নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পা সুন্দর রাখতে আপনি বিভিন্ন ঘরোয়া পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারেন। তাহলে জেনে নিন পায়ের ক্ষেত্রে কী কী ঘরোয়া পদ্ধতির সাহায্য নেবেন।

লেবুর রস লেবুতে ভিটামিন সি রয়েছে, যা ত্বকের জন্য উপকারি। লেবু ব্যবহার করে আপনি আপনার পা পরিষ্কার এবং সুন্দর করতে পারেন। একটি বাটিতে লেবুর রস বার করে নিন। এরপর তুলোর সাহায্যে পায়ের দাগগুলিতে লাগান। সপ্তাহে তিন দিন আপনি লেবু ব্যবহার করতে পারেন।

শসা ত্বককে হাইড্রেট রাখার জন্য শসা সবচেয়ে দুর্দান্ত উপায় বলে মনে করা হয়। শসা ত্বককে উজ্জ্বল করে এবং এর মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ত্বকের দাগ দূর করে। তাই শসা ব্যবহার করতে চাইলে, প্রথমে শসা ছাড়িয়ে তার পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টে গোলাপ জল মেশান। তারপরে এটি আপনার পায়ে লাগান। পেস্টটি শুকোনোর পর জল দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন স্নানের আগে এই পদ্ধতি প্রয়োগ করতে পারেন। এতে পায়ের সমস্ত দাগ কমবে।

আপেল ভিনেগার আপেল ভিনেগার ত্বকের জন্য খুবই উপকারি। এটি ব্যবহার করলে ত্বকের ট্যান দূর হয়। প্রথমে ছয় চামচ জল নিন। তারপর তাতে দুই চামচ আপেল ভিনেগার মেশান। এরপর এটি প্রয়োগ করুন। প্রতিদিন এটি করলে ত্বকের দাগ কমে যাবে।

চিনির স্ক্রাব পায়ের জন্য চিনির স্ক্রাব খুবই উপকারি। এতে ডেড স্কিন এবং দাগ দূর হয়। দুই চামচ চিনি এবং চার চামচ অলিভ অয়েল নিন। এই দুটি উপকরণ ভাল করে মিশিয়ে নিন। এর পরে পায়ে ভালভাবে ম্যাসাজ করুন। কিছুক্ষণ পরে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে তিন দিন চিনি স্ক্রাব করতে পারেন।








Leave a reply