হেয়ার ড্রায়ার কি ব্যবহার করা উচিত? জেনে নিন

|

রোজকার ব্যাস্ত জীবনে রোজই বাইরে বেড়তে হয়। তাই এখন সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন বা কেউ কেউ রোজই শ্যাম্পু করে নেন। কিন্তু শ্যাম্পু করার পর চুলকে শোকাবার সময় নেই, তাই তাড়াতাড়িতে হেয়ার ড্রায়ারই একমাত্র ভরসা। খুব কম সময়ে আপনার কাজ হয়ে যায় ঠিকই কিন্তু কখনও ভেবেছেন আপনার এই সাধের হেয়ার ড্রায়ার যেটা কিনা আপনার রোজকার বন্ধু, সেইই আপনার চুলের ক্ষতি করছে! কি মনে প্রশ্ন আসছে তো সেটা কিভাবে? আসুন দেখে নি।

চুল পড়ে: যারা বাইরে নিত্য যাতায়াত করেন, তাদের স্নান করার পর চুল শোকাতে বেশ সমস্যা হয় তাই সাধারন ভাবে চুল শোকাবার পরিবর্তে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করেন যাতে তাড়াতাড়ি কাজ হয়। কিন্তু অতিরিক্ত হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করার ফলে চুল ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর অতিরিক্ত তাপের ফলে চুল ঝরতে শুরু করে। কারন এই তাপ স্ক্যাল্পে চুলের গোঁড়ায় যে ছিদ্রগুলি থাকে সেগুলি খুলে দেয়। সেগুলি আর বন্ধ হতে পারে না আর তার ফলেই ওই ছিদ্রগুলো দিয়ে আপনার মাথায় ধুলোবালি বসে যায়। এই জমাট হয়ে বসে যাওয়া ধুলোবালি থেকে অকালে চুল ঝরে যায়। হঠাৎ অতিরিক্ত চুল ঝরছে? বুঝবেন এর কারন আর কিছুই না আপনার হেয়ার ড্রায়ার। তাই একটু দূর থেকে ব্যবহার করুন।

চুল পুড়ে যায়ঃ অতিরিক্ত তাড়াতাড়ি কাজ করার জন্য আমরা হেয়ার ড্রায়ারকে ঠিক মত ব্যবহার করিনা এরফলে যদি তাপ আতিরিক্ত হয়ে যায় তাহলে চুল পুড়ে যায়। আর একদম অসতর্ক হয়ে কাজ করলে চুলের পাশাপাশি হাত এবং মাথাতেও আঘাত লাগতে পারে। তাই খুব সাবধান।

চুল ফেটে যায়ঃ দামি শ্যাম্পু ব্যবহার করার পরও চুল ভীষণ ভাবে ফেটে যাবার কারন বুজতে পারছেন না? এর কারন হল আপনার হেয়ার ড্রায়ার। যতই দামি শ্যাম্পু ব্যবহার করুন না কেন লাভ হবে না কারন অতিরিক্ত হেয়ার ড্রায়ার চুলকে এত বেশি শুকিয়ে দেয় যে চুলের প্রাকৃতিক তৈলাক্ত ভাব চলে যায়। চুল একদম শুকনো আর প্রাণহীন হয়ে যায়। আপনার হেয়ার ড্রায়ার চুল থেকে স্বাভাবিক ময়ে‍শচার কে টেনে নেয় তার ফলে চুল ভাঙতে থাকে।

চুলের গঠন নষ্ট হয়ঃ হেয়ার ড্রায়ারের অতিরিক্ত তাপের ফলে চুলের স্বাভাবিক পুষ্টিও নস্ত হয়ে যায়। এর ফলে চুলের স্বাভাবিক গঠন নষ্ট হয়ে যায় এবং চুল মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। চুল সহজে লম্বা হয় না চুলের স্বাভাবিক বৃদ্ধি নষ্ট হয়। চুলের প্রাকৃতিক উজ্জলতা হারিয়ে যায়। এবং চুল আতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে যাবার ফলে চুলে জট পরে।

ব্রেন ক্ষতিগ্রস্ত হয়ঃ হেয়ার ড্রায়ারের আরও একটি মারাত্মক ক্ষতিকারক দিক হল এর দ্বারা চুলের সাথে সাথে ব্রেনও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর মাত্রারিক্ত তাপ ব্রেনের কোষগুলিকে সরাসরি আঘাত করে। একটি মাত্রা পর্যন্ত কোষগুলি তাপ সহ্য করতে পারে। বেশি তাপ পেলে কোষগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, নষ্ট হয়েও যেতে পারে। কাজ করা বন্ধ করে দিতে পারে। এছাড়াও এরফলে চোখেরও ক্ষতি হয়। চোখের ভেতরের জল শুকিয়ে যায়। যে জলে চোখের জন্য অনেক দরকারি উপাদান থাকে। সেই জল শুকিয়ে গেলে চোখের খুব ক্ষতি হয়।

তাহলে দেখতে পাচ্ছেন নিশ্চয়ই যে একটু সময় বাঁচাতে গিয়ে আপনার চুলের কত মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে! যদি একদমই সময় না থাকে হেয়ার ড্রায়ার যদি ব্যবহার করতেই হয় তাহলে সতর্ক হয়ে ব্যবহার করুন। তাতে কোন সমস্যা হবেনা। আর যতটা পারেন কম ব্যবহার করে প্রাকৃতিক ভাবে চুল শোকাবার চেষ্টা করুন। তাতে চুলও ভালো থাকবে আর আপনিও।








Leave a reply