হতাশা এবং মানসিক সমস্যা থেকে কিভাবে মুক্তি পাবেন

|

ভয়ঙ্কর মানসিক অসুস্থতা এবং হতাশা স্বাস্থ্যের সাথে পারিবারিক সম্পর্কের উপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এ থেকে মুক্তি পেতে লোকেরা প্রায়শই ক্যাফিনযুক্ত চা, কফি এবং মিষ্টিযুক্ত সিগারেটের সাহারা নেয়। তবে হতাশা কমার পরিবর্তে এ রোগ বাড়তে থাকে।

ভেষজ চিকিৎসা বিশেষজ্ঞদের মতে আপনার যদি মানসিক চাপ থাকে বা কখনও কখনও আপনি যদি মানসিক চাপের মধ্য দিয়ে যান তবে এর জন্য ঘরোয়া উপায় রয়েছে। তাদের ব্যবহার হতাশা থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করবে। সবচেয়ে বড় কথা হ’ল ঘরোয়া প্রতিকারের কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হবে না।

১.বাদাম – হতাশার অবসান ঘটাতে বাদাম একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে বিবেচিত হয়। হতাশার সময় হালকা ক্ষুধা লাগলে বাদাম খাওয়া যায়। মেজাজ ঠিক রাখার জন্য বাদামে ম্যাগনেসিয়াম এবং ফসফরাস থাকে। এছাড়াও বাদামে ফাইবার, প্রোটিন, ভিটামিন ই পাওয়া যায়। এর ব্যবহার হতাশার অবসান ঘটাতে সাহায্য করবে।

২.নারকেল জল- নারকেল জল মনকে সতেজ রাখে। এটি পান করার পরে  শরীর হালকা অনুভূত হয়। নারকেল জল শরীরে পটাসিয়ামের ঘাটতিও দূর করে। নারকেল জল পান করায় টেন্ডারগুলির প্রসার দূর করতে সহায়তা করে এবং মানসিক চাপও হ্রাস পায়।

৩.কাজু- কাজু বাদামে পাওয়া দস্তা ভয় বা উদ্বেগের পৃষ্ঠকে হ্রাস করতে সহায়তা করে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, এর ব্যবহারের কারণে মানসিক বিভ্রান্তির পৃষ্ঠে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস পেয়েছিল। কাজুতে ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড এবং প্রোটিনও রয়েছে। এটি স্ট্রেস হ্রাস করার পাশাপাশি শরীরে অন্যান্য সুবিধাও বয়ে আনে।








Leave a reply