সিরাম ত্বক ও চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করার পাশাপাশি আর কী কী উপকার করতে পারে, জেনে নিন

|

ত্বক এবং চুলে সৌন্দর্য আনার জন্য সিরাম একটি ভাল উপায় হিসাবে কাজ করে। কেন এবং কীভাবে সিরাম ব্যবহার করবেন তা শিখুন। চকচকে চুল এবং চকচকে ত্বক পেতে ব্যবহার করা অনেক সৌন্দর্য পণ্যগুলির মধ্যে সিরাম অন্যতম। এটি ত্বক এবং চুলের পুষ্টির জন্য একটি শক্তিশালী উৎস।

চুলের জন্য
চুলে যন্ত্রপাতি (ড্রায়ার, কার্লার ইত্যাদি) ব্যবহারের আগে, চুলে হেয়ার সিরাম ব্যবহার করুন। এতে চুলের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস পায়। সিরাম একটি প্রতিরক্ষামূলক পদার্থ হিসাবে কাজ করে, যা চুলকে পুষ্টি দেয়। চুলে আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনার এটি সহজ উপায়।

নিয়মিত সিরামের ব্যবহার চুল পড়া বন্ধ করে। চুলের সিরামটিতে সাধারণত সিলিকন থাকে যা চুলকে চকচকে করে তুলতে সহায়তা করে।

আর্দ্রতার সংস্পর্শের কারণে চুলগুলি সাধারণত ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এই ক্ষেত্রে, চুলের সিরাম ব্যবহার করে এগুলি তাপ এবং আর্দ্রতা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

ত্বকে
সিরামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে কোলাজেন এবং ভিটামিন-সি, যা ত্বককে চকচকে ও নরম করে তোলে। সিরামের নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ত্বকের দাগ হালকা হয়ে যায় এবং ত্বকের শুষ্কতা, অন্ধকার বৃত্ত এবং সূক্ষ্ম রেখাগুলিও হ্রাস পায়।

এর ব্যবহার ত্বকের ব্ল্যাকহেডস এবং হোয়াইটহেডস হ্রাস করে। মুখের সিরামগুলি ত্বকে আর্দ্রতা নিয়ে আসে। এ কারণে শুষ্ক ত্বকের সমস্যাও মুক্তি পাওয়া যায়।

ঘুমের অভাব, স্ট্রেস, দূষণ ইত্যাদি ত্বককে নিস্তেজ ও ক্লান্ত করে তোলে। এমন পরিস্থিতিতে, সিরামের নিয়মিত ব্যবহারের ফলে ফিরে আসতে পারে ত্বকের সৌন্দর্য।

কখন এবং কীভাবে ব্যবহার করবেন

ত্বকের জন্য- ৩-৪ ফোঁটা সিরাম দিয়ে মুখটি ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজ করার পরে ২ ফোঁটা সিরাম নিয়ে পুরো মুখে ভালো করে লাগান। ফেস সিরাম প্রতিদিন দুবার প্রয়োগ করা যায়। এটি ত্বক পরিষ্কার করার জন্য ব্যবহার করা হয়। ঘরের বাইরে বেরোনোর আগে সিরামের উপরে সানস্ক্রিন লাগান এবং রাতে সিরাম লাগিয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগান।

চুলের জন্য- ভেজা চুলে ২-৪ ফোঁটা সিরাম লাগান। সিরাম লাগানোর আগে তোয়ালে দিয়ে চুল মুছবেন না। ভেজা চুলে সিরাম লাগানো ভাল। তালুতে সিরাম লাগিয়ে চুলের প্রান্তে সমানভাবে প্রয়োগ করুন। খুব বেশি সিরাম ব্যবহার করবেন না। এর অতিরিক্ত ব্যবহার চুল নষ্ট হয়ে যেতে পারে।








Leave a reply