সর্দি-কাশি থেকে বাঁচতে পান করুন জোয়ানের কাড়া, রইল তৈরির পদ্ধতি

|

আবহাওয়ার পরিবর্তনের সাথে সাথে ছোট-খাটো শারীরিক সমস্যা, যেমন – সর্দি, কাশি, জ্বর, বমি এগুলো লেগেই থাকে। আর এই সমস্ত রোগ থেকে মুক্তি পেতে ইমিউনিটি পাওয়ার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিয়মিত শরীরচর্চা ছাড়াও এমন কিছু জিনিস রয়েছে, যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়া থেকে রক্ষা করে। তাই ইমিউনিটি পাওয়ার বাড়ানোর জন্য, আমরা বিভিন্ন ঘরোয়া উপায়ের সাহায্য নিতে পারি, তার মধ্যে একটি হল ‘কাড়া’।

আজ আমরা আপনাদের জোয়ানের কাড়া সম্পর্কে বলব, যা সহজেই সর্দি-কাশি ও সাধারণ জ্বর নিরাময় করার ক্ষমতা রাখে। পাশাপাশি এটি আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও শক্তিশালী করবে। জোয়ানে অনেক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে, যা আমাদের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে।

জোয়ানের প্রচুর গুণ জোয়ানে প্রচুর পুষ্টি থাকে, যা শরীরকে সুস্থ ও ফিট রাখতে সহায়তা করে। এছাড়াও, এতে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি, অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা সর্দি-কাশির কমাতে অত্যন্ত উপকারি।

জোয়ানের কাড়া বানানোর উপকরণ ১/২ চামচ জোয়ান পাঁচটি তুলসী পাতা ১/২ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ মধু তৈরির পদ্ধতি একটি পাত্রে এক গ্লাস জল, জোয়ান, গোলমরিচ গুঁড়ো এবং তুলসী পাতা দিন। এবার এই জল পাঁচ মিনিট ফুটিয়ে নিন। মিশ্রণটি একটু ঠান্ডা হওয়ার পর তাতে মধু দিন। এবার ভালভাবে মিশিয়ে এটি পান করুন।

এর উপকারিতা জোয়ানের অনেক উপকারিতা আছে। আর এর সঙ্গে গোলমরিচ, তুলসী, মধু মেশালে এর গুণ আরও বেড়ে যায়। ফ্লু থেকে মুক্তি দেওয়ার পাশাপাশি এই কাড়া আরও সমস্যার সমাধান করে, দেখুন সেগুলি – ক) পেটের রোগ থেকে মুক্তি দেয়। খ) সর্দি-কাশি থেকে মুক্তি। গ) পিরিয়ডের ব্যথা উপশম করে। ঘ) ব্রণ কমায়।

মনে রাখবেন একদিনে অনেক বেশি জোয়ান গ্রহণ স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে, তাই এই কাড়া দিনে একবারই পান করুন। তবে, যে মহিলারা বাচ্চাকে স্তন্যপান করান এবং গর্ভবতীদের এটি পান করা উচিত নয়।








Leave a reply