শীত, বৃষ্টি বেড়েছে, এই ৫ টি টিপস অনুসরণ করুন এবং নিজেকে রোগ থেকে রক্ষা করুন

|

শীতের সময় সতর্কতা:
বৃষ্টির পরে আবারও শীত বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল সহ উত্তর ভারতে আবারও বৃষ্টি ও শীত প্রবাহ শুরু হয়েছে। শীত ও বর্ষায় প্রচুর মজা পাওয়া যায় তবে এর সাথে অনেক সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ে। এই মৌসুমে অবহেলা আপনাকে অসুস্থও করতে পারে। তাই আজ আমরা আপনাকে বলছি কীভাবে আপনি এই মৌসুমে নিজেকে রক্ষা করতে পারেন।

পোশাক পরুন ২-৩ স্তর:
কারণ শীত, বৃষ্টি উভয়ের কারণে অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকি খুব বেশি। তাই শরীরে ২-৩ স্তরের কাপড় পরুন। বিশেষত আপনার বুক, মাথা এবং পা ভালভাবে ঢেকে রাখুন। উষ্ণ জল পান করুন বৃষ্টি এবং বিশেষত শীত মৌসুমে সাধারণ জল খুব শীতল থাকে। এটি গলাতে সংক্রমণ বা সর্দির মতো রোগের ঝুঁকি হ্রাস করে। এছাড়াও, হালকা গরম জল স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভাল।

ঠান্ডার জন্য হোম রেসিপি:

যদি এই মৌসুমে আপনার ঠান্ডা বা গলা ব্যথা হয় তবে একটি পাত্রের মধ্যে ১০-১৫ টি তুলসী পাতা, ৭-৮ কালো মরিচ, ৫ গ্রাম আদা সিদ্ধ করে পিষে নিন। পানি ফুটে উঠলে এটিকে ফিল্টার করে এক চামচ মধু মিশিয়ে গরম চায়ের মতো পান করুন। আপনি দিনে দুবার এটি পান করতে পারেন, এটি আপনাকে দু-তিন দিনের মধ্যে প্রচুর স্বস্তি দেয়।

বাইরের খাবার:

এসব খাবার থেকে দূরে থাকুন, বিশেষত বর্ষাকালে বাইরের খাবার না খাওয়াই ভালো। এই মৌসুমে অনেকগুলি মাছি এবং মশা উত্পাদিত হয় যার কারণে বিভিন্ন ধরণের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে। স্ট্রিট ফুড পরিচ্ছন্নতার যত্ন নেয় না, তাই এটি না খাওয়াই ভাল এছাড়াও, ফল এবং সবজিগুলি ভালভাবে ধুয়ে সেগুলি ব্যবহার করুন।

বৃষ্টি এবং ঠান্ডা আবহাওয়া:

বৃষ্টি এবং ঠান্ডা আবহাওয়া ত্বকের সংক্রমণ করে। এমন পরিস্থিতিতে শীত থাকা সত্ত্বেও কখনই গোসল করা বন্ধ করবেন না। প্রতিদিন গোসল করুন যাতে শরীর পরিষ্কার থাকে এবং সংক্রমণের ঝুঁকি না থাকে। শীতের মৌসুমে গোসল না করা শরীরের শুষ্কতা বাড়ায়, যা বিভিন্ন ধরণের সংক্রমণ ঘটায়।








Leave a reply