শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আমলকী খাওয়ার উপকারিতা

|

আমলকীর গুণাবলী সম্পর্কে যতটা জানবে, সেগুলি তত কমই হবে। আমলকীর শত রোগের ঔষধ হিসাবে বিবেচিত হয়। এটি গ্রহণ, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি অনেক রোগকে মূল থেকে নির্মূল করে। জেনে নিন আমলকীর খাওয়া কতটা উপকারী ।

এই উপাদানগুলি আমলকিতে পাওয়া যায়

আমলা ভিটামিন সি, ভিটামিন এবি, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, আয়রন, কার্বোহাইড্রেট, ফাইবার, ডিউরেটিক অ্যাসিড সমৃদ্ধ হয়। যা আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং আপনার হৃদয়কে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

সাধারণত, আপনি বিভিন্ন উপায়ে আমলকী খেতে পারেন। আমলকী কাঁচা পাশাপাশি রস, গুঁড়া, জাম, ক্যান্ডি ইত্যাদি খেতে পারেন । আমলকী একমাত্র পরিমাণে খাওয়া উচিৎ। না হলে এর ক্ষতি আরও বেশি হতে পারে। 

আমলকীর রস

সবার আগে প্রথমে ভালো করে আমলকিগুলি ধুয়ে ফেলুন। এর পরে এর ছোট ছোট টুকরো কেটে কার্নেলগুলি মুছে ফেলুন। এখন এটি পেষকদন্ত মধ্যে ঢালুন। এতে জিরা, নুন এবং জল দিন এবং একটি ঘন পেস্ট তৈরি করুন। তারপরে একটি চালনি ব্যবহার করে এটি একটি গ্লাস বা বাটিতে ফিল্টার করুন। আপনার গুজবেরি রস প্রস্তুত।

আমলকি খাওয়ার উপকারিতা

১.ডায়াবেটিস

আমলকীর সাথে কিছু জিনিস মিশিয়ে ব্লাড সুগার সহজেই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এজন্য সমপরিমাণ গসবেরি, মাইরাবালান চুবুলি, বেহেরা, নগরমোঠা, বারবেরি, এবং সিডার নিয়ে পিষে নিন। এর পরে, ১০-২০ মিলি গ্রাম নিন এবং সকালে এবং সন্ধ্যায় এটি গ্রহণ করুন।

২.স্বাস্থ্যকর লিভার

লিভারে যদি কোনও ধরণের সমস্যা হয় তবে আমলকীর সস তৈরি করে মধু দিয়ে খান। এটি আপনার লিভারকেও সুস্থ রাখবে। এর সাথে জন্ডিস থেকেও স্বস্তি পাবেন।

৩.চোখের সমস্যা

আপনি যদি ছানি ছড়ানোর সমস্যায় ভুগেন তবে আমলকী খুব কার্যকর প্রমাণ করতে পারে। এ জন্য রসনজান, মধু ও ঘি ভালো করে আমলকীর সাথে মিশিয়ে নিন। এর পরে এটি চোখে লাগান। আপনি এ থেকে উপকার পাবেন। এ ছাড়াও যদি চোখের ব্যথায় সমস্যা হয় তবে তার মধ্যে ১-২ ফোঁটা আমলকীর রস দিন।

৪.গলা ব্যথা

কখনও কখনও ঋতু পরিবর্তিত আবহাওয়ার কারণে গলা ব্যথায় সমস্যা হয়। আমলকী এই সমস্যার জন্য খুব উপকারী। এর জন্য আমজোদা, হলুদ,আমলকী, যবাক্ষর এবং চিত্রককে সম পরিমাণে কষিয়ে নিন। এরপরে এই গুঁড়োর ১-২ গ্রাম মধু বা ঘি দিয়ে চাটুন।

৫.কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা

আপনি যদি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভুগছেন তবে জল দিয়ে খানিকটা ত্রিফলা গুঁড়া খান। আপনি এ থেকে উপকার পাবেন।

৬.ডায়রিয়া

ডায়রিয়ার সমস্যা থেকে যদি আপনি সমস্যায় পড়ে থাকেন তবে আমলকী গাছের ১০ টি নরম পাতা নিন এবং এটি পিষে নিন। এর পরে দিনে দুবার বাটার মিল্ক দিয়ে সেবন করুন ।








Leave a reply