রক্তাল্পতায় ভুগছেন? সমাধান করুন ঘরোয়া উপায়ে

|

যে কোনো বড় অসুখের শুরু হতে পারে এই রক্তাল্পতা দিয়ে। কারণ, রক্তাল্পতা মারাত্মক পর্যায়ে না পৌঁছানো পর্যন্ত একে তোমন ক্ষতিকর কোনও সমস্যা বলে মনে করেন না অনেকেই। কিন্তু বাস্তবে এই অবহেলার ফল হয় মারাত্মক। তাই শুরু থেকেই রক্তাল্পতাকে গুরুত্ব দিয়ে দেখা উচিত।

একজন পূর্ণবয়স্ক মহিলার জন্য রক্তে হিমোগ্লোবিন ১২.১ থেকে ১৫.১ গ্রাম/ডেসিলিটার, পুরুষের রক্তে ১৩.৮ থেকে ১৭.২ গ্রাম/ডেসিলিটার, শিশুদের রক্তে ১১ থেকে ১৬ গ্রাম/ডেসিলিটার থাকা স্বাভাবিক। কারও রক্তে হিমোগ্লোবিন এর চেয়ে কমে গেলে তিনি রক্তাল্পতায় আক্রান্ত বলেই মনে করা হয়।

মূলত শরীরে আয়রনের অভাব থেকেই এই সমস্যা বাড়তে থাকে। তাই রক্তাল্পতা সমস্যা দূর করতে শরীরে আয়রনের পরিমাণ বা ভারসাম্য সঠিক রাখা প্রয়োজন। আর এর জন্য প্রয়োজন পর্যাপ্ত পরিমাণে আয়রন সমৃদ্ধ খাবার। আসুন জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু সহজলভ্য খাবার সম্পর্কে যা রক্তাল্পতার হাত থেকে রক্ষা করবে আপনাকে।

১) চীনাবাদাম: রক্তাল্পতার হাত থেকে মুক্তি পেতে হলে প্রতিদিন চীনাবাদাম খাওয়া জরুরি। চীনাবাদামে থাকা আয়রন আপনাকে রক্তাল্পতার সমস্যাকে দূরে রাখবে।

২) ডিম: দিনে মাত্র একটি ডিম খাওয়া অভ্যাস করলে শরীরে আয়রনের ঘাটতি বা রক্তাল্পতার সমস্যা থেকে দূরে থাকা যাবে সহজেই। তাই ডিমের মতো সহজলভ্য, পুষ্টিকর খাবার রাখুন প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায়।

৩) খেজুর: খেজুরের পুষ্টিগুণ অতুলনীয়। খেজুরে রয়েছে ভরপুর আয়রন। তাই রক্তাল্পতার সমস্যা দূর করতে নিয়মিত খাদ্যতালিকায় খেজুর রাখতে পারেন। উপকার পাবেন।

৪) টমেটো: টমেটো খুবই সহজলভ্য একটি সবজি যা রক্তাল্পতা দূর করতে খুবই কার্যকরী। টমেটোয় থাকা আয়রন, ভিটামিন সি এবং লাইকোপেন রক্তাল্পতা-সহ নানা রোগের হাত থেকে আমাদের রক্ষা করতে সক্ষম। তাই নিয়মিত খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন টমেটো। এড়ানো যাবে রক্তাল্পতার সমস্যা।

৫) মধু: মধু একটি উচ্চ ঔষধি গুণসম্পন্ন ভেষজ তরল। এই মধু রক্তাল্পতার সমস্যা দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী। চিনির পরিবর্তে নানা খাবারে মধু যোগ করতে পারেন। এতে চিনির ক্ষতিকর প্রভাব থেকেও বাঁচা যাবে, এর সঙ্গেই রক্তাল্পতার সমস্যাও দূর হবে। সূত্র: জিনিউজ








Leave a reply