রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করা ছাড়াও কিউইসের আরও অনেক উপকারিতা রয়েছে জেনে নিন

|

কিউই খাওয়ার স্বাস্থ্যকর কারণ: কিউইতে প্রচুর পুষ্টি রয়েছে যা শরীরকে বিভিন্ন রোগ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। এগুলি ছাড়াও এই পুষ্টিগুণগুলি শরীরকে ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে।

কিউই স্বাস্থ্য উপকারিতা:

কিউই একটি খুব ছোট ফল, তবে এটি অনেকগুলি স্বাস্থ্য বেনিফিট সরবরাহ করে। কিউই ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, ভিটামিন ই, ফোলেট এবং পটাসিয়াম জাতীয় পুষ্টিতেও সমৃদ্ধ। এ ছাড়া অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং ফাইবারও প্রচুর পরিমাণে উপস্থিত রয়েছে। তাদের ছোট কালো বীজ ভোজ্য। কিউইতে উপস্থিত এই সমস্ত পুষ্টিই প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করে এবং শরীরকে ব্যাকটেরিয়া এবং জীবাণুর বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে। আসুন জেনে নেওয়া যাক কিউই আমাদের শরীরের জন্য কী কী অন্যান্য স্বাস্থ্য উপকার করে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে:

কিউই কেবল আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে না, তবে আমাদের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করতে পারে। ২০১৪ সালের একটি সমীক্ষায় জানা গেছে যে দিনে তিন কিউইস খাওয়া রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করে কারণ এতে জৈব কার্যকরী উপাদান রয়েছে। সময়ের সাথে সাথে এটি হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের মতো রক্তচাপ দ্বারা সৃষ্ট রোগগুলির ঝুঁকিও হ্রাস করে।

হজম উন্নতি করে:

কিউইতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে যা আপনার হজমে উন্নতি করে। এগুলিতে অ্যাক্টিনিডিন নামে একটি প্রোটোলিটিক এনজাইম রয়েছে যা প্রোটিনকে ভেঙে দিতে সহায়তা করতে পারে। সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে কিউইতে অ্যাক্টিনিডিন রয়েছে যা প্রোটিনের হজমে উন্নতি করে।

রক্ত জমাট বাঁধা হ্রাস করে:

ওস্রো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা গেছে যে দিনে ২ থেকে ৩ কিউইস আপনার রক্ত জমাট বাঁধার ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে। কিউই রক্তে উপস্থিত ফ্যাটও হ্রাস করে। এগুলি ছাড়াও গবেষকরা এটিও আবিষ্কার করেছিলেন যে প্রতিদিনের অ্যাসপিরিন পরিপূরকের মতো কিউই হৃদরোগের উন্নতির সম্ভাবনা রাখে।

প্রতিরোধ ব্যবস্থা বাড়ায়:

কিউইতে ভিটামিন-সি রয়েছে । ভিটামিন-সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এগুলি ছাড়াও কিউই শরীরকে সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। একই সঙ্গে এটি সর্দি-সর্দি-কাশির মতো রোগও প্রতিরোধ করে।








Leave a reply