মাত্র ৩৫ ও ৪৯ রুপিতে করোনার ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে ভারতের বাজারে!

|

ভারতের সান ফার্মাসিউটিক্যালস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড মঙ্গলবার জানিয়েছে, সংস্থা শীঘ্রই নিজেদের তৈরি ফ্যাভিপিরাভির-সমৃদ্ধ ওষুধ ভারতের বাজারে বিক্রি করবে। এই ওষুধটি করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত হবে।

বুধবার আরেক ওষুধ প্রস্তুতকারি সংস্থা Lupin জানিয়েছে ফ্যাভিপিরাভির ট্যাবলেট তারাও নিয়ে আসছে বাজারে ৷ কম এবং মাঝারি করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় এই ওষুধ তারা বাজারে নিয়ে এসেছে বলে জানিয়েছে সংস্থা ৷

কোভিড চিকিৎসায় সান ফার্মা বাজারে নিয়ে এল ফ্লুগার্ড৷ ফ্লুগার্ড (‌ফ্যাভিপিরাভির ২০০ এমজি)‌ ভারতের বাজারে পাওয়া যাবে ৩৫ রুপি প্রতি ট্যাবলেট। এটি করোনা ভাইরাসের হাল্কা বা মাঝারি উপসর্গে কাজ দেবে।

এই ওষুধটি আসলে জাপানের একটি সংস্থা ইনফ্লুয়েঞ্জার জন্য তৈরি করেছিল।পাশাপাশি লুপিনের তৈরি ফ্যাভিপিরাভির ট্যাবলেটের দাম ৪৯ টাকা ৷

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে ৷ গত কয়েকদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ভারতে প্রায় ৫০ হাজারের বেশি ৷ যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ ৷ এই অবস্থায় ফ্যাভিপিরাভির ওষুধ ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার ছাড়পত্র পেয়েছে সম্প্রতি ৷

কোভিড–১৯ চিকিৎসায় এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে ফ্যাভিপিরাভির এবং রেমডেসিভির সমৃদ্ধ অ্যান্টিভাইরাল ওষুধগুলিকে ছাড়পত্র দিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকার। তবে ফ্যাভিপিরাভির হল মুখ–গহ্বর সংক্রান্ত এমনই একটি অ্যান্টি–ভাইরাল, যা একমাত্র কোভিড–১৯–এর মাঝারি উপসর্গে চিকিৎসার জন্য অনুমোদিত হয়েছে বলে জানিয়েছে সান ফার্মা।

অন্যদিকে লুপিনের কোভিহল্ট ২০০ এমজি-র ট্যাবলেট এনেছে বাজারে ৷ এক পাতায় থাকছে ১০টি করে ট্যাবলেট ৷ দাম মাত্র ৪৯ রুপি ৷








Leave a reply