মাছ খেতে ভালবাসেন তো? কিন্তু জেনে নিন কোন কোন মাছ খাওয়া আপনার উচিত নয়।

|

কথায় আছে ‘মাছে ভাতে বাঙালী!’ তা আপনি যে মাছ অন্ত প্রাণ তা জানি আমরা। আর কোন বাঙালীই বা মাছ না খেতে ভালবাসে বলুন তো? খেতে বসে ভাতের পাশে মাছের পিসটি না থাকলে যে আপনার পেট ভরলেও মন ভরে না, তা তো জানি মশাই। কিন্তু জানেন কি, এমন অনেক মাছ আছে, যা মোটেও খাওয়া উচিত নয়, অথচ আপনি দিনের পর দিন নিশ্চিন্তে খেয়ে যান! আসুন আজ জেনে নিন কোন কোন মাছ আপনার খাওয়া উচিত না, এবং সেই মাছ খেলে আপনার কি কি অসুবিধা হতে পারে।

ইম্পোরট করা মাগুর মাছঃ মাগুর মাছ কিন্তু নানা সাইজের হতে পারে। কিন্তু মাছের সাইজ যাতে তাড়াতাড়ি বাড়ে, সেজন্য অনেকসময় মাছচাষিরা নানারকম হরমোন ইঞ্জেক্ট করেন মাছের শরীরে। সেই জন্য বাজারে গিয়ে হাত নিশপিশ করলেও বড় আকারের মাগুর মাছ কেনা এবার বন্ধ করুন। ছোট সাইজের মাছ কিনুন। ওগুলোয় অনেক বেশী উপকার।

ম্যাকারেলঃ শপিং মল আর নানারকম রেস্তোরাঁর দৌলতে বাঙালী এখন পোনামাছের পাশাপাশি ম্যাকারেল খেতেও দিব্যি অভ্যস্ত হয়ে উঠছে। ম্যাকারেলে কিন্তু পারদ থাকে। আর আপনি যদি ম্যাকারেল খান, তাহলে ওই পারদ কিন্তু আপনার পেটেই জমা হতে থাকবে। এর ফলে নানারকম বিপদজনক রোগও হতে পারে। তাই এবার থেকে ম্যাকারেলকে একটু এড়িয়েই চলুন।

টুনাঃ টুনা মাছও বিদেশী। বাঙালীর খাবারের তালিকায় এখন আস্তে আস্তে দিব্যি ঠাই করে নিচ্ছে। টুনাতেও কিন্তু প্রচুর পরিমাণে পারদ থাকে। তাছাড়া যেসমস্ত ফার্মে টুনা চাষ করা হয়, সেখানে মাছকে প্রচুর পরিমাণে হরমোন ও অ্যান্টি-বায়োটিক ইঞ্জেক্ট করা হয়। যা আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর হতে পারে।

তেলাপিয়াঃ বাজারে গিয়ে দেখে-শুনে বেশ কিছু সুন্দর, নধর দেখতে তেলাপিয়া কিনে ফেললেন। খবরদার। তেলাপিয়াতে কিন্তু প্রচুর পরিমাণে ক্ষতিকারক ফ্যাট থাকে, যা আপনার শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায় ও হার্টের রোগ ও অন্যান্য নানা রোগের কারণ হতে পারে। তাছাড়া আপনার যদি হাঁপানি বা আরথ্রাইটিস থাকে তাহলেও তেলাপিয়া মাছ না খাওয়া উচিত।

ভালো মাছ বাছবেন কি করেঃ টাটকা ভালো মাছের কিন্তু সবসময় চকচকে আঁশ আর পরিষ্কার চোখ থাকে। তাই মাছ কেনার সময় অবশ্যই এই দুটো দেখে কিনবেন। তাছাড়া মাছ হাতে নিয়ে যদি দেখেন খুব নরম লাগছে, পাখনা শুকিয়ে গেছে তাহলে বুঝবেন ওই মাছ অনেক দিনের বাসি। জ্যান্ত মাছের প্রতিও আপনার যে অনিবার্য লোভ আছে, তাও জানি, এবং লোভ থাকাই যে স্বাভাবিক, তাও মানি। কিন্তু জ্যান্ত মাছ কেনার সময়েও দেখে নেবেন যে যে পাত্রে মাছ রাখা আছে, তার জল পরিষ্কার আছে কিনা।

না না, মাছ খেতে আপনাকে আমরা কক্ষনো বারণ করবো না। আমরা তো কেবল মাত্র আপনাকে কিছু ক্ষতিকর মাছ সম্পর্কে জানালাম আর বললাম ভালো মাছ কি দেখে চিনবেন। এবার বাজারে গিয়ে টাটকা, তাজা মাছ কিনুন আর আপনার গিন্নির মন জয় করে নিন।








Leave a reply