মস্তিষ্ককে সক্রিয় করার কিছু অসাধারণ কৌশল

|

মস্তিস্ক আমাদে কে সচল রাখে। ভালো কিংবা মন্দ দিক বুঝতে সহায়তা করে। বুদ্ধি খাটিয়ে কোনো কাজ করার জন্য মস্তিষ্ক শক্তি শালী হওয়া ভীষণ জরুরি। তবে মাঝে মধ্যে দেখা যায় মাথাটা কাজ করে না। কেমন যেন থমকে থাকে।মাথা গরম হয়ে যায়।

আসলে মস্তিষ্ককে ব্যস্ত রাখলে তবেই সে তার দায়িত্ব ঠিক ভাবে পালন করতে পারে। নইলে তো সে থমকে থাকবেই। তাইতো দ্রুত সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ও সব সময় সক্রিয় থাকতে মস্তিষ্ককে ব্যস্ত রাখতে হবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক মস্তিষ্ককে আরো বেশি সক্রিয় করার কিছু অসাধারণ কৌশল সম্পর্কে-

ধরুন পছন্দের ‘ক’ দিয়ে শুরু এমন ১০ টি জায়গার নাম লিখলেন, এই যে চিন্তা করে লিখছেন, এতেই মস্তিষ্ক সক্রিয় হয়ে উঠবে।

১০ বা ১২টি আইটেম লিখে বাজারের লিস্ট করুন। কয়েক ঘণ্টা পর লিস্ট না দেখে মনে সব গুলো আইটেম লেখার চেষ্টা করুন। এবার মিলিয়ে দেখুন কয়টি মিলেছে,কয়টি সঠিক হয়েছে।

নতুন ভাষা শেখা, রান্না শেখা, ছবি আঁকা, গান শেখা,মাছ ধরা বা পছন্দের কোনো কাজ নতুন করে শিখলেও মস্তিষ্কের বয়স বাড়ে না।

ছোট হিসাবের জন্য ক্যালকুলেটর ব্যবহার না করে নিজেই হিসাব করে বের করুন।

শব্দ মেলানোর খেলা গুলোতেও কিন্তু মস্তিষ্ক উদ্দীপ্ত হয়।

পর্যাপ্ত ঘুম ও বিশ্রাম আমাদের মস্তিষ্ককে বেশি সময় ধরে সক্রিয় রাখে।

মস্তিষ্কের ব্যায়ামও রয়েছে কিছু, যেগুলো করলে আমরা বেশ উপকার পেতে পারি। এর মধ্যে রযেছে- ঘাড় থেকে মাথাটিকে ডান ও বাম দিকে এবং সামনে-পেছনে কাত করে ১০ থেকে ১২ সেকেন্ড রাখুন। এভাবে ৪ থেকে ৫ বার করুন প্রতিদিন।

মস্তিষ্ক সক্রিয় রাখতে দ্রুত অক্সিজেন সরবরাহ করতে সহায়তা করে এমন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ফল ও সবজি নিয়মিত খেতে হবে।








Leave a reply