বেশি মোটা হওয়া সমস্যা

|

ওভার ওয়েট (বাড়তি ওজন) বা ওবেসিটি (ওজনাধিক্য) গত দশক এবং এই দশকের একটি প্রচলিত শব্দ। বেশি পরিমাণ ক্যালরি খেলে এবং সেই তুলনায় শারীরিক পরিশ্রম কম করলে ওজন বেড়ে যায়। ওজন বাড়া অনেক ধরনের সমস্যা তৈরি করে শরীরে।

স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি জানিয়েছে ওজন বেশি থাকার কিছু অসুবিধার কথা। আসুন দেখা যাক সেগুলো—

টাইপ টু ডায়াবেটিস
ডায়াবেটিস একটি মেটাবলিক ডিজঅর্ডার (বিপাকীয় অসুবিধা)। গবেষণায় বলা হয়, মোটা হওয়ার সঙ্গে ডায়াবেটিসের একটি সম্পর্ক রয়েছে। ওজন বেশি থাকলে টাইপ-২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে।

উচ্চ রক্তচাপ
উচ্চ রক্তচাপ হৃদরোগ তৈরি করে। আর ওজন বেড়ে গেলে উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকিও বেড়ে যায়। গবেষণায় বলা হয়, যদি কারো উচ্চ রক্তচাপ থাকে এবং ওজনও বেশি থাকে, তাহলে প্রথমে ওজন কমানো দরকার। কেননা, ওজন একটি বড় কারণ উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার।

বাজে কোলেস্টেরল
যাঁদের ওজন বেশি থাকে, তাঁদের সাধারণত শরীরে বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেশি হয়। গবেষণায় বলা হয়, যদি ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়, তাহলে বাজে কোলেস্টেরল বাড়ার ঝুঁকি কমে।

হৃদরোগ ও স্ট্রোক
ওজন বাড়লে হৃদরোগের ঝুঁকিও বেড়ে যায়। বাড়তি ওজন করোনারি আর্টারিতে প্লাক তৈরি করে। ওজন বাড়লে হঠাৎ কার্ডিয়াক সমস্যা ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ক্যানসার
শরীরে কোষের অস্বাভাবিক পরিবর্তনের কারণে ক্যানসার হয়। ক্যানসার সারাবিশ্বেই মৃত্যুর একটি বড় কারণ। ওজন বেশি থাকা ক্যানসারের একটি বড় কারণ। বাড়তি ওজন হলে স্তন, কোলন, র‍্যাক্টাম, ইউটেরাস, গলব্লাডার ও কিডনির ক্যানসারের আশঙ্কা বেড়ে যায়।

ঘুমের অসুবিধা
স্লিপ এপনিয়া একটি প্রচলিত ঘুমের সমস্যা। এ সমস্যা হলে অস্বাভাবিক রকম নাক ডাকা হয়। ওজন বেশি হলে ঘুমের এই সমস্যাটি হয়।








Leave a reply