দেহের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে নিমপাতার ভূমিকা

|

নিম পাতা আপনার রক্ত ​​পরিষ্কারের পাশাপাশি কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই আজ আমরা আপনাকে নিম পাতার রসের উপকারিতা সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যা আপনার দেহের জন্য খুবই উপকারী এবং স্বাস্থ্যকর ।  

নিমকে আয়ুর্বেদে এক অলৌকিক ঔষধ হিসাবে বিবেচনা করা হয়। নিমের মূল, ফল, পাতা, ডাল এবং বাকল প্রাকৃতিক রোগের ঔষধ হিসাবে পরিচিত। নিমকে আয়ুর্বেদের সবুজ রোগের নাম দিয়ে ডাকা হয় কারণ নিম আপনার রক্ত ​​পরিষ্কার করার পাশাপাশি কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নিম আপনার শরীর, ত্বক এবং চুলের জন্যও খুব উপকারী, তাই আজ আমরা আপনাকে নিম পাতার রসের উপকারিতা সম্পর্কে বলতে যাচ্ছি যা আপনাকে স্বাস্থ্যকর করার পাশাপাশি আপনার অনেক উপকার করে।

১।চোখের জন্য উপকারী

মোবাইল এবং কম্পিউটারের অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে আপনার চোখটি সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। কারণ এটি থেকে বেরিয়ে আসে নীল আলো যা আপনার চোখের জন্য ক্ষতিকর । এটি আপনার চোখের দৃষ্টিশক্তি দুর্বল করে দেয়। চোখের আলো বাড়াতে আপনি দু’ ফোঁটা নিম রস দু’চোখে রেখে দিন। আপনার চোখে যদি কনজেক্টিভাইটিস সমস্যা থাকে তবে নিমের জল ব্যবহার করলে তা নিরাময় সম্ভব।

২।ব্রণ দূর করুন

নিমের জল মুখের উন্নতি করতে এবং ব্রণের সমস্যা দূর করতে খুব কার্যকর এবং সহায়ক বটে। আপনার মুখে ব্রণ থাকলে নিমের রস মুখে লাগান। নিম জলের সাথে মুখের মালিশ করলে মুখের আর্দ্রতা অক্ষুণ্ণ থাকে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। এটি প্রাকৃতিকভাবে ত্বককে সাদা করার ক্ষেত্রে সহায়ক এবং এর কোনও পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াও নেই।

৩।রক্ত পরিষ্কার করুন

নিম পাতার রস রক্ত ​​পরিষ্কার করার কার্যকর ওষুধ। যদি কোনও ব্যক্তির পরিষ্কার রক্ত ​​না থাকার অভিযোগ করে তবে নিমের রস তার পক্ষে খুব উপকারী। পরিষ্কার রক্তের অভাবের কারণে শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে যায় এবং রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। এর বাইরে খারাপ কোলেস্টেরল কমাতেও এটি সহায়ক।

৪।ডায়াবেটিস এড়িয়ে চলুন

ডায়াবেটিস একটি খুব বিপজ্জনক রোগ যা রক্তে চিনির পরিমাণ বাড়ার কারণে ঘটে। আপনি যদি প্রতিদিন নিমের রস খান তবে আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রিত থাকে। তাই ডায়াবেটিস রোগী নিমপাতার রস গ্রহণ করলে রক্তে শর্করার মাত্রা স্বাভাবিক থাকবে।

৫।ম্যালেরিয়া এবং জন্ডিসের চিকিৎসা করুন

নিম পাতার রস ম্যালেরিয়া এবং জন্ডিসের মতো রোগ নিরাময়ে খুব কার্যকর। নিমের মধ্যে থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্যের কারণে এটি ম্যালেরিয়া ভাইরাসকে বাড়তে বাধা দেয় এবং একই সাথে লিভারকে শক্তিশালী করে তোলে। আপনার দেহে জন্ডিস থাকলে নিমের পাতার সাথে মধু মিশিয়ে খাওয়া উচিৎ। এটি আপনাকে জন্ডিস থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে।

৬।দাগ মুছতে সহায়তা করুন

আপনার মুখের চিকেন পক্সের দাগগুলি দেখতে খুব খারাপ এবং এগুলি খুব শীঘ্রই শেষ হয় না। চিকেন পক্সের চিহ্নগুলি সরাতে নিমের রস দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এ ছাড়া নিমের রস আপনার ত্বক সম্পর্কিত রোগ যেমন অ্যাকজিমা এবং ছোট পক্সের সম্ভাবনা হ্রাস করে।

৭।দাঁত এবং মাড়ির রক্ত পড়া ​​বন্ধ করে

আপনার মাড়িতে রক্ত ​​ও পাইরিয়ার সমস্যা থাকলে নিমের ছাল জলে ভিজিয়ে খেলে খুবই উপকারী। এর সাথে এটি আপনার মাড়ি ও দাঁতকে শক্তিশালী করে। এ ছাড়া নিমের ফুলের ডিকোশন গ্রহণ দাঁতের সমস্যায়ও উপকারী। প্রতিদিন নিম ডাল দাঁতে প্রয়োগ করলে দাঁতের জীবাণু নষ্ট করতে সাহায্য করে।








Leave a reply