বিনা খরচে উচ্চরক্ত চাপ কিভাবে নিয়ন্ত্রণে রাখবেন

|

উচ্চরক্তচাপ হচ্ছে নীরব ঘাতক। ওষুধ ছাড়াই নিয়ন্ত্রণে রাখা যায় উচ্চরক্তচাপ। চিকিৎসকদের মতে, শরীরে রক্তচাপ বাড়ার মূল কারণ অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন। এ ছাড়া খাদ্যতালিকায় অবশ্যই পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। আপনি চাইলে ওষুধ ছাড়াই নিয়ন্ত্রণে আনতে পারবেন উচ্চরক্তচাপ। জেনে নিই উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে কী করবেন?

১. উচ্চরক্তচাপ কমাতে প্রথমে রান্নার তরকারিতে দেয়া লবণ ছাড়া অতিরিক্ত লবণ খাওয়া যাবেন না। কারণ অতিরিক্ত লবণ রক্তে মিশে সোডিয়ামের মাত্রা বাড়ায় এবং দেহে সোডিয়ামের ভারসাম্য নষ্ট করে। ফলে রক্তচাপ বাড়ে।

২. প্রাচীন ভারতীয় আয়ুর্বেদ মতে, হাইপারটেনশন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সবচেযে উপকারী হলো মধু। এক কাপ উষ্ণ গরম পানিতে এক চামচ মধুর সঙ্গে ৫-১০ ফোঁটা অ্যাপেল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে খেতে পারলে রক্তচাপ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

৩. কলাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম যা রক্তচাপ কমায়। দিনের যে কোনও সময়েই কলা খাবার চেষ্টা করুন।

৪. অতিরিক্ত তেল আর মশলাদার খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। মশলাদার খাবারের বদলে পাতে বেশি করে রাখুন সবুজ শাক-সবজি।

৫. তরমুজে রয়েছে লাইকোপিন, পটাসিয়াম, ভিটামিন এ এবং ফাইবার যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। অ্যামিনো অ্যাসিড এল-সিট্রুলিন সমৃদ্ধ তরমুজ শুধু রক্তচাপ নয়, শরীরের নানা সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।

৬. নিউট্রশনিস্ট বা পুষ্টিবিদদের মতে, কমলালেবুর রসের সঙ্গে ডাবের জল মিশিয়ে একটা মিশ্রণ তৈরি করে দিনে ২ থেকে ৩ বার খেতে পারলে রক্তচাপ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। ৭. ওজন কমাতে এবং এনার্জি বাড়াতে ওটসের কোনো বিকল্প নেই। ডায়েটিশিয়ানরা সকালে ওটস খাওয়ারই পরামর্শ দিয়ে থাকেন।








Leave a reply