প্রতিদিন আমলার রস পান, আপনার শরীরের জন্য কত উপকারি তা জানুন

|

আমলার স্বাস্থ্য সুবিধা অনেক। আমলাও আয়ুর্বেদে ওষুধ হিসাবে ব্যবহার করার পরামর্শ দেওয়া হয়। আমলা ভিটামিন সি এর প্রধান উৎস আমলা কেবল বহু রোগ নিরাময়ে উপকারী নয়, এটি আপনার লিভারের উন্নতিতেও উপকারী হতে পারে। এছাড়াও এটি কোলেস্টেরল স্তর নিয়ন্ত্রণেও উপকারী বলে বিবেচিত হয়। এই দুটি রোগ থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য একটি প্রাকৃতিক প্রতিকারও হতে পারে আমলা।

এখানে আমরা দেখাব যে, আমলা কীভাবে আমাদের লিভার এবং কোলেস্টেরল স্তরের জন্য উপকারী হতে পারে। উচ্চ কোলেস্টেরলে আমাদের হৃদরোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়। পরিবর্তিত জীবনধারা এবং আমাদের ডায়েটের আমাদের লিভার এবং কোলেস্টেরলের মাত্রায় সরাসরি প্রভাব পড়ে। উচ্চ কোলেস্টেরল স্তর আপনার হৃদয়ের সাথে সম্পর্কিত স্ট্রোক এবং স্ট্রোকের মতো মারাত্মক রোগগুলিকে আমন্ত্রণ জানায়। তাই এখানে, জেনে নিন কীভাবে আমলা এই রোগগুলি নিরাময় করবেন।

আমলা লিভারকে আরও ভাল করে তোলে – আমলায় পাওয়া অ্যান্টি-অক্সিড্যান্টগুলি আমাদের শরীর থেকে টক্সিন অপসারণ করতে সহায়তা করে এবং লিভারটি সেই জায়গা যেখানে টক্সিন সর্বাধিক পরিমাণে পাওয়া যায়। লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিত্সায়ও আমলা ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি হেপাটাইটিস আক্রান্তদের জন্যও খুব উপকারী হতে পারে।

আমলা ফ্যাটি লিভারের রোগ প্রতিরোধে ঘরোয়া প্রতিকার হিসাবে কাজ করতে পারে। চিবানপ্রশ তৈরিতে আমলা মূল উপাদান হিসাবে ব্যবহৃত হয় যা লিভারকে সুস্থ রাখার পাশাপাশি আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এবং হজম ব্যবস্থা উন্নত করতেও উপকারী হতে পারে।

কীভাবে কোলেস্টেরলের মাত্রা বজায় রাখতে আমলা খাবেন – এটি আপনার ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য প্রতিদিন আমলার রস পান করা সবচেয়ে সহজ এবং নিরাপদ উপায়। এটি তাও মনে রাখা জরুরী যে তাজা গোলবুড়ির রস পান করুন।

বাড়িতে কীভাবে গুজবেরি রস তৈরি করবেন – দুটি গুজবেরি ছোট ছোট টুকরো টুকরো করে কেটে নিন এবং এর বীজ ফেলুন। এটি একটি ব্লেন্ডারে ঢালুন এবং এতে কিছুটা জল মিশিয়ে ভাল করে কষান। এবার একটি চালনি দিয়ে এই রসটি ফিল্টার করুন।কালো নুন এবং মধু মিশিয়ে পান করুন।








Leave a reply