পেঁপে অ্যালার্জি এবং শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা তৈরি করতে পারে, এর ৬ টি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া জেনে নিন

|

পেঁপেতে খুব কম ক্যালোরি থাকে। গ্রীষ্মে এই ফলটি খাওয়ার অনেক সুবিধা রয়েছে। অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস, ক্যারোটিনয়েড সমৃদ্ধ এই ফলের ব্যবহার চোখের সাথে সম্পর্কিত সমস্যাগুলি থেকে মুক্তি দিতে পারে। এ ছাড়া পেঁপের পাতাও বর্ষার প্রসারের জন্য খুব উপকারী। এগুলি ছাড়াও পেঁপে খাওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে তবে এটি বিপুল পরিমাণে খাওয়ার অসুবিধাও রয়েছে।

গর্ভাবস্থায় ক্ষতিকারক:
বেশিরভাগ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা পুরোপুরি পেঁপে এড়াতে গর্ভবতী মহিলাদের পরামর্শ দেন। তাঁর মতে, পেঁপে, এর বীজ এমনকি এর পাতা ভ্রূণের স্বাস্থ্যের জন্য চরম ক্ষতিকারক। একটি কাঁচা পেঁপেতে প্রচুর পরিমাণে ক্ষীর থাকে যা জরায়ুর জটিলতা তৈরি করে। পেঁপে পাওয়া পেপেইন শরীরের অনেকগুলি ঝিল্লি ক্ষতিগ্রস্থ করে যা ভ্রূণের বিকাশের জন্য প্রয়োজনীয়।

হজমের সমস্যা:
পেঁপেতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফাইবার থাকে। কোষ্ঠকাঠিন্য রোগীদের জন্য এটি একটি ভাল ফল তবে উচ্চ পরিমাণে এটি গ্রহণ পেটের সমস্যা নিয়ে আসে। এতে উপস্থিত ল্যাটেক্স পেটের ব্যথার মতো সমস্যা দিতে পারে। বেশি পেঁপে খেলেও ডায়রিয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ওষুধের সাথে ক্ষতিকারক:
মার্কিন জাতীয় গ্রন্থাগার এ জাতীয় পরিস্থিতিতে সহজে রক্তপাতের মতো সমস্যা হতে পারে।

রক্তচাপ হ্রাস করুন:
গাঁজানো পেঁপে খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা হ্রাস পায়। এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অত্যন্ত মারাত্মক। এক্ষেত্রে ডায়াবেটিস রোগীদের অবশ্যই পেঁপে খাওয়ার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

অ্যালার্জির কারণ:
পেঁপে পাওয়া পাপাইন নির্দিষ্ট ধরণের অ্যালার্জির কারণ হতে পারে। চুলকানি, মাথা ঘোরা, মাথা ব্যথা এবং ফোলাভাবের মতো সমস্যা হতে পারে।

শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা:
পেঁপে পাওয়া পেপেইন এনজাইমের কারণে এর উচ্চ মাত্রায় গ্রহণ আপনাকে শ্বাসযন্ত্রের রোগের শিকার করতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে হাঁপানি, জ্ঞান এবং শ্বাস প্রশ্বাসের মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।








Leave a reply