নাশপাতি স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী, জেনে নিন

|

যে নাশপাতিকে ইংরেজীতে পিয়ার বলা হয়। এটি কেবল খাবারেই সুস্বাদু নয়, এটি একটি সুপারফুডও বটে। এটি বিভিন্ন উপায়ে স্বাস্থ্যের পক্ষেও উপকারী।

নাশপাতিতে প্রচুর ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থ রয়েছে যেমন পটাসিয়াম, ভিটামিন-সি, ভিটামিন-কে, ফেনলিক যৌগ, ফোলেট, ফাইবার, তামা, ম্যাঙ্গানিজ, ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি। এটি স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী। সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য নাশপাতি একটি স্বাস্থ্যকর বিকল্প।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী নাশপাতি
টাইপ ১ এবং টাইপ ২ উভয় ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা কঠিন। এ জাতীয় পরিস্থিতিতে চিকিৎসা এবং ওষুধের পাশাপাশি ডায়েটের দিকেও খেয়াল দিতে হবে যাতে চিনির স্তর নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এমন পরিস্থিতিতে নাশপাতিতে এমন অনেকগুলি উপাদান পাওয়া যায়, যার কারণে এটি ডায়াবেটিস রোগীদের চিনির নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করতে পারে।

ফাইবার পূর্ণ
নাশপাতি থেকে প্রচুর ফাইবার পাই। উচ্চ আঁশযুক্ত খাবার গ্রহণের ফলে কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস পায়। শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ থাকে এবং রক্তে শর্করার মাত্রাও নিয়ন্ত্রণ করে। গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, ফাইবার গ্রহণের ফলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি অনেকটাই হ্রাস হয়। যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তাদের রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে, তাই ডায়াবেটিস রোগীরাও নাশপাতি সহজেই খেতে পারেন।

ওজন কমাতে সহায়ক
ডায়াবেটিস রোগীদেরও ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয় তা না হলে তাদের সমস্যা আরও বাড়তে পারে। নাশপাতি হল সর্বনিম্ন ক্যালোরির ফল। একটি মাঝারি আকারের ১৭৫ গ্রাম নাশপাতিতে ১০০ ক্যালোরি এবং ২৭ গ্রাম কার্বস থাকে। যারা ওজন হ্রাস করার চেষ্টা করে তাদের জন্য নাশপাতি একটি ভাল ফল।

অনাক্রম্যতা বাড়ান
নাশপাতিতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি প্রতিরোধ করে। ভিটামিন সি দীর্ঘদিন ধরে প্রতিরোধ ব্যবস্থা জন্য উপকারী হিসাবে পরিচিত কারণ এটি সাদা রক্ত কোষের উৎপাদন এবং ক্রিয়াকলাপকে উদ্দীপিত করে।








Leave a reply