দুধ এর উপকারিতা ও গুনাগুণ সম্পর্কে জেনে রাখুন

|

আপনি এও স্বীকার করবেন যে দুধ একটি সম্পূর্ণ ডায়েট। ভিটামিন ডি ছাড়াও অনেক পুষ্টি উপাদান, খনিজ বিশেষত ক্যালসিয়াম দুধেও পাওয়া যায়। এতে প্রোটিনও পাওয়া যায়, তবে আমরা এখানে দুধের মানের কথা বলছি, যার অধীনে এটি আপনার হার্টের স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী।


হার্টকে স্বাস্থ্যকর রাখে দুধ: ব্রিটেনে পরিচালিত একটি গবেষণা এই ফলাফল প্রকাশ করেছে। এই গবেষণাটি প্রায় ৫০০ জনের উপর করা হয়েছিল। এই ব্যক্তিদের দুই বছরের জন্য একটি নির্দিষ্ট বিরতিতে মেডিক্যালি পরীক্ষা করা হয়েছিল। এই গবেষণা অনুসারে, যে সমস্ত লোকেরা প্রতিদিন সকালে বা সন্ধ্যায় এক গ্লাস দুধ পান করেন তাদের কোনও স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দেয়নি। গবেষকরা এবং অন্যান্য বিজ্ঞানীরা বলেছেন যে সুস্থ থাকতে আমাদের অবশ্যই প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ পান করতে হবে। দুধ পান করা কেবল শরীরকে সুস্থ রাখে না, হাড়ের সমস্যা থেকে বাঁচার পাশাপাশি ত্বক ও চুলের উন্নতিও করে। তাই শিশু বা বয়স্ক সবারই নিয়মিত দুধ খাওয়া উচিত।


দুধকে স্বাস্থ্যের সঙ্গী বলা হয় না। দুধে প্রচুর ক্যালসিয়ামের পাশাপাশি ভিটামিন বি, ডি এবং আলফা হাইড্রোক্সি অ্যাসিড এবং আরও অনেক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এটি ত্বকে ময়শ্চারাইজ করার পাশাপাশি শরীরের অভ্যন্তরে ত্বকের কোষকে শক্তিশালী করে কাজ করে। এটি ভিতরে থেকে ত্বকের বিভিন্ন স্তরকে পুষ্টি জোগায়। এটি ত্বককে শুষ্ক হতে বাধা দেয়। এতে উপস্থিত পটাসিয়াম রক্তচাপ সংশোধন করতে সহায়তা করে এবং এতে পাওয়া ফসফরাস হাড়কে মজবুত করার পাশাপাশি শরীরে শক্তি যোগাতে সহায়তা করে। এতে উপস্থিত প্রোটিন শরীরের কোষগুলি মেরামত করতে সহায়তা করে। ভিটামিন এ, বি -২, বি -১২, ই এবং সেলেনিয়াম, জিঙ্ক, ম্যাগনেসিয়াম, থায়ামিন, বিটাকারোটিন জাতীয় পুষ্টি শরীরকে সুস্থ রাখতে বেশ সহায়ক।








Leave a reply