কচি আমপাতার উপকারিতা

|

আম সবাই খেলেও এই পাতার পুষ্টিগুণের কথা আমরা অনেকেই জানি না। বাতব্যথা, শ্বাসকষ্ট, ব্লাডপ্রেশার নিয়ন্ত্রণে রাখবে এই কচি আমপাতা। আর আমের মধ্যে রয়েছে অনেক উপকারী গুণ। এতে রয়েছে ভিটামিন, এনজাইম, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ উপাদান।

আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে আমপাতার অনেক উপকারিতার কথা জানানো হয়েছে। এই পাতা ব্যবহারের ফলে যেসব রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়, সে সব বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

আম পাতায় মেঞ্জিফিরিন নামক একটি সক্রিয় উপাদান থাকে, যা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

আমপাতার ঔষধি গুণ-

১. কচি আমপাতা ব্লাডপ্রেশারকে নিয়ন্ত্রণে রাখে।

২. আমপাতার সাহায্যে ক্ষত নিরাময়ে করা সম্ভব। আমপাতা পুড়িয়ে যে ছাই হচ্ছে তা ক্ষত স্থানে লাগালে উপকার পাবেন।

৩. শ্বাসকষ্টে ভুগলে প্রতিদিন সকালে আমপাতা দিয়ে তৈরি চা খান। উপকার পাবেন।

৪. অনেক সময় দেখা যায় বারবার হেঁচকি উঠছে। আমপাতা পুড়িয়ে তার ধোঁয়া নাকের কাছে ধরলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

৫. আঁচিল নিরাময়ে আমপাতা খুব উপকারী। আমপাতা পুড়িয়ে কালো করে নিন। সেই গুঁড়োর মধ্যে সামান্য জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আঁচিলে লাগান। দ্রুত সেরে যাবে।

৬. বাতের সমস্যায় কচি আমপাতা খুবই উপকারী। কচি আমপাতা জলে ফুটিয়ে প্রতিদিন সেই জল খেলে উপকার পাবেন।

৭. আমপাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস জল মিশিয়ে খান। কিডনিতে পাথর জমবে না।








Leave a reply