ওজন হ্রাস ও রোগ থেকে বাঁচতে কম্বুচার উপকারীতা

|

কম্বুচা চা এমন এক চা যা বহু বছর ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটি অনেক স্বাস্থ্য উপকারে পূর্ণ , একটি মজাদার এবং সামান্য টক স্বাদের। কম্বুচা চা ওজন হ্রাস থেকে শুরু করে অনেক রোগ প্রতিরোধে কার্যকর হিসাবে বিবেচিত হয়। এই চা আপনার স্বাস্থ্যকর জিনগুলির প্রচারে সহায়তা করে। এখানে আমরা আপনাদের কুম্বুচা চা এর উপকারিতা এবং কীভাবে কুম্বুচা তৈরি করবেন তা বলব।


কম্বুচা কী?
যখন মিষ্টি চায়ে খামির এবং ব্যাকটেরিয়া যুক্ত হয়, তখন এটি কম্বুচ গঠন হয়। ধারণা করা হয় এটি হাজার হাজার বছর পূর্বে সুদূর পূর্ব চিনে উৎপন্ন হয়েছিল। এটি ঐতিহ্যবাহী চীনা সংস্কৃতির চা হিসাবে পরিচিত ছিল। এতে যুক্ত ব্যাকটিরিয়া এবং খামির এটি টক করে তোলে যা অন্ত্রকে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।


কম্বুচা চা কীভাবে বানাবেন
কম্বুচা চিনি, ঠান্ডা ফিল্টারযুক্ত পানি, কালো / সবুজ চা এবং স্ক্যাবি (খামির এবং ব্যাকটেরিয়া) ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। কম্বুচা চা কীভাবে তৈরি করবেন তা এখানে:
প্রথমে আপনি একটি প্যানে পানি গরম করুন এবং এটি সিদ্ধ করুন।
এবার আপনি এতে কালো / সবুজ চা এবং চিনি যুক্ত করুন।
এর পরে, আঁচটি বন্ধ করুন এবং এটি ঠান্ডা হতে দিন।
এখন আপনি এটিতে স্ক্যাবি যুক্ত করুন এবং এটি সংরক্ষণ করুন।
এটি এক সপ্তাহ রেখে দিন
এবার এই মিশ্রণটি কিছু চিনিযুক্ত একটি বায়ুচূর্ণ পাত্রে রাখুন এবং আরও কয়েক দিন রেখে দিন।এলাচ, দারুচিনি জাতীয় মশলা দিয়ে এটি স্বাদযুক্ত করতে পারেন।


কম্বুচায়ের স্বাস্থ্য উপকারিতা


১.হজম এর জন্য উপকারি
কম্বুচা চা ভিটামিন, খনিজ এবং অ্যাসিড সমৃদ্ধ যা দেহের ব্যাকটেরিয়া নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। হজম থেকে শুরু করে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণের অনেক সুবিধা রয়েছে ।


২.অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট এবং প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ
কম্বুচা চা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলিতে সমৃদ্ধ, যা ক্ষতিগ্রস্থ কোষগুলি মেরামত করতে সহায়ক। এটি ছাড়াও এটিতে প্রোবায়োটিক সুবিধা ও আছে। এটিতে উচ্চ মাত্রার প্রোবায়োটিক, এনজাইম এবং অ্যামিনো অ্যাসিড রয়েছে যা বদহজম ঠিক করতে সহায়তা করে। এতে উপস্থিত উপাদানগুলি আপনার বিভিন্ন রোগকে দূরে রাখতে এবং ত্বককে সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। একই সাথে, এটিতে প্রদাহ বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে এবং এটি ক্যান্সার বিরোধী বৈশিষ্ট্যের জন্য খুব পরিচিত।


৩.ওজন হ্রাস এবং রক্তে শর্করার জন্য
কম্বুচা আপনার ওজন হ্রাস করতেও সহায়ক। কারণ এটি আপনার বিপাক বাড়াতে সহায়তা করে। এটি আপনার রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এটি ডায়াবেটিস এবং রক্তচাপের মতো সমস্যা কমাতে সহায়ক। এটি টাইপ ২ ডায়াবেটিসযুক্ত ব্যক্তিদের জন্য বেশি উপকারী।


৪.হৃদরোগ থেকে দূরে থাকুন
এই চা এলডিএল কোলেস্টেরল কণাকে জারণ থেকে রক্ষা করার ক্ষমতা রাখে যা হৃদরোগের কারণ । কম্বুচা আপনার হার্টবিটকে স্বাভাবিক রেখে আপনার হৃদয়কে সুস্থ রাখবে।








Leave a reply