এই তিনটি টিপস সিগারেটের আসক্তি থেকে মুক্তি দিতে পারে

|

বলা হয় যে একবার সিগারেটে আসক্তি হয়ে গেলে এর থেকে মুক্তি পাওয়া খুব কঠিন। আপনি হয়ত আপনার চারপাশের অনেক লোককে দেখেছেন যারা সিগারেট ছাড়তে চান কিন্তু ছাড়তে পারছেন না। সকলেই জানে যে সিগারেটের ফলে শরীরের কত ক্ষতি হয়। যারা ধূমপান করেন তারাও এ সম্পর্কে ভাল জানে। অনেক সময় এমন হয় যে কোনও ব্যক্তি তার সিগারেটের আসক্তি ছেড়ে দিতে চায় তবে সঠিক উপায়টি না। এমন পরিস্থিতিতে এই তিনটি টিপস সিগারেটের আসক্তি থেকে মুক্তি দিতে সহায়তা করতে পারে।

আগে ভাবুন, কেন আপনি সিগারেট ছাড়তে চান?
আপনি কেন নিজের আসক্তি থেকে মুক্তি পেতে চান সে সম্পর্কে একটি ডায়েরিতে লিখুন। লেখার সময় আপনার মনে আরও কারণ থাকতে পারে, কেবল সেগুলিও লিখুন। সিগারেট ছাড়ার চেষ্টা করার সময় আপনি যখনই সিগারেট খাইতে মন চাইবে তখন এই ডায়েরিটি বারবার পড়ুন। এটি আপনাকে বিরত রাখতে সহায়তা করবে।

আসক্তি বোধ করবেন না
আপনি জানেন যে আপনি সিগারেটের আসক্ত। তবে আপনি যদি এটি থেকে দূরে থাকাকালীন একই জিনিসটি ভাবতে থাকেন তবে সিগারেট থেকে দূরে থাকা আপনার পক্ষে কঠিন হবে। সিগারেট নিয়ে ভাবনা এড়িয়ে চলুন। আপনি সিগারেট খাওয়ার মত অনুভব করবেন তবে এটি খাবেন না। ওজন হ্রাস করার চেষ্টা করার সময় লোকেরা যেভাবে চর্বি, তেল বা অন্যান্য ওজন বাড়ানোর আইটেম থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করে ঠিক এভাবে আপনিও চেষ্টা করতে পারেন। তবে সিগারেটের আসক্তি এবং চর্বিযুক্ত খাবার খাওয়ার আকাঙ্ক্ষার মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে।

সিগারেট ধূমপায়ীদের থেকে দূরে থাকুন
সিগারেট ছাড়ার চেষ্টা করার সময়কালে আপনার ধূমপায়ীদের থেকে দূরে থাকা উচিত। এর কারণ এটি সিগারেট ধূমপান করতে আপনাকে উৎসাহিত করে না, তবে সিগারেটের ধোঁয়া আপনার মনকে দুর্বল করতে পারে। আপনি তাদের সিগারেট ধূমপান না করতে বলতে পারেন।

পরিবার এবং বন্ধুদের কাছ থেকে সহায়তা নিন
আপনার সিদ্ধান্ত সম্পর্কে আপনার পরিবার এবং বন্ধুদের বলুন। তাদের বলুন যে আপনি সিগারেট কেনার বা পান করার চেষ্টা করলে তারা আপনাকে বাধা দেবে। প্রয়োজনে সিগারেটের আসক্তি থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করার জন্য আপনার অফিসের সহকর্মীদের কাছে আবেদন করুন। এটি আপনাকে সিগারেট ছাড়তে সহজ করবে।








Leave a reply