এই অভ্যাসটি বাচ্চাদের ৫ টি বড় বিপদ সৃষ্টি করে, জেনে নিন

|

শ্বাস গ্রহণ গুরুত্বপূর্ণ কারণ আমাদের দেহের শ্বাসের মাধ্যমে অক্সিজেন সরবরাহ হয় যা আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই অক্সিজেনটি কার্বন ডাই অক্সাইডে রূপান্তরিত হয় এবং শাস-প্রস্বাসের সময় শরীর থেকে বেরিয়ে যায়।


সর্দিজনিত সমস্যার কারণে বা অন্যান্য কারণে নাক বন্ধ হয়ে গেলে আমরা অনেক সময় মুখ দিয়ে শ্বাস নিয়ন্ত্রণ করি। তবে যদি কেউ মুখ দিয়ে শ্বাস নিতে অভ্যস্ত হন তবে এই পরিস্থিতি ক্ষতিকারক হতে পারে। বাচ্চাদের জন্য কেন মুখ দিয়ে শ্বাস নেওয়া বিপজ্জনক জেনে নিই।


মুখ শুকিয়ে যাওয়ার সমস্যা হতে পারে
আপনার শিশু যদি তার নাকের চেয়ে মুখ দিয়ে বেশি নিঃশাস নেয় তবে তার মুখ শুকিয়ে যেতে পারে। বাচ্চারা যখন মুখ দিয়ে শ্বাস নেয়, তখন বাতাস তাদের মুখের মধ্য দিয়ে যায় এবং তাদের সাথে ময়েশ্চার (আর্দ্রতা) বহন করে। আপনার মুখের লালা (থুতু) ব্যাকটেরিয়া থেকে রক্ষা করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। লালা না থাকায় মুখের অনেক সমস্যা হয় যেমন গহ্বর, দাঁতে সংক্রমণ, দুর্গন্ধযুক্ত দুর্ঘটনা দেখা দিতে পারে।


মুখ এবং দাঁতের আকার খারাপ হতে পারে
মুখের শ্বাস প্রশ্বাসের কারণে আপনার শিশুর মুখ এবং দাঁতের আকারও খারাপ হতে পারে। বিশেষজ্ঞরা উল্লেখ করেছেন যে, যখন শিশু দীর্ঘক্ষণ মুখের মাধ্যমে শ্বাস নেয় তখন এই পরিবর্তনগুলি ঘটতে পারে – মুখটি পাতলা এবং দীর্ঘ হতে পারে, দাঁত আঁকাবাঁকা হতে পারে, দাঁতে মাড়ির উপস্থিতি দেখা যায়।


উচ্চ রক্তচাপ এবং হৃদরোগ
মুখের শ্বাস-প্রশ্বাস আপনার শিশুকে অনেক বিপজ্জনক রোগের দিকে নিয়ে যেতে পারে। গবেষণা থেকে জানা যায় যে, মুখের মাধ্যমে শ্বাস নেওয়ার সময় সঠিক পরিমাণে অক্সিজেন শরীরে পৌঁছে না, যা ধমনীতে অক্সিজেনের ঘাটতি তৈরি করে। অক্সিজেনের অভাব তাকে উচ্চ রক্তচাপ এবং হৃদরোগের শিকার করতে পারে। এগুলি ছাড়াও শিশুটির অনিদ্রা (ঘুমের অভাব) হতে পারে।


ভাল ঘুম না হওয়া
সাধারণত যে সমস্ত লোক মুখ দিয়ে শ্বাস নেয় তাদের ভাল ঘুম হয় না, যার কারণে সবসময় তাদের শরীর ক্লান্ত থাকে। এ কারণেই বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন যে, মুখ দিয়ে শ্বাস নেওয়া শিশুদের মানসিক ও শারীরিক স্বাস্থ্যও কিছুটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়। কম ঘুমানো মনকে দুর্বল করে এবং অনেক শারীরিক সমস্যা এবং বিপজ্জনক রোগে সৃষ্টি করে।


শরীরে অক্সিজেনের অভাব দেখা দিতে পারে
যখন কোনও ব্যক্তি মুখ দিয়ে শ্বাস নেয়, তখন সঠিক পরিমাণে অক্সিজেন তাদের ফুসফুসে পৌঁছায় তবে এই সময়ের মধ্যে উইন্ডপাইপ শুকিয়ে যায়। যার কারণে অ্যালভিওলি কিছু পরিমাণ অক্সিজেন গ্রহণ করে। অ্যালভিওলি আপনার শ্বাসযন্ত্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ যা অক্সিজেনকে কার্বন ডাই অক্সাইডের অণুতে রূপান্তরিত করে। এই কারণে, সমস্ত অক্সিজেন যা শরীরের বাকী অংশে পৌঁছায় না। শ্বাসের মাধ্যমে ফুসফুসে পৌঁছে যায়। এই পরিস্থিতি অনেক সময়ে বিপজ্জনক হতে পারে।








Leave a reply